× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার , ১১ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

করোনার নতুন ধরন নিয়ে আতঙ্ক

প্রথম পাতা

মানবজমিন ডেস্ক
২৭ নভেম্বর ২০২১, শনিবার

নতুন করোনভাইরাসের রূপটি (বি.১.১.৫২৯) ‘ভ্যাকসিনকে পরাজিত করতে পারে’ । বলছেন যুক্তরাজ্যের ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারি গ্রান্ট শ্যাপস। এই ভ্যারিয়ান্টটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকা, নামিবিয়া, লেসোথো, বতসোয়ানা, এসওয়াতিনি এবং জিম্বাবুয়েতে করোনার এই  নতুন ভ্যারিয়েন্টের খোঁজ মিলেছে। তাই সরকারিভাবে ভ্রমণ তালিকায় এই ছয়টি দেশকে লাল তালিকাভুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মি. শ্যাপস। যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বৃহস্পতিবার রাতে বি.১.১.৫২৯ ভ্যারিয়েন্ট সম্পর্কে জনসাধারণকে সচেতন করেছেন, বলেছেন এই নতুন রূপটি টিকা বা পূর্বে সংক্রমণের দ্বারা তৈরি অনাক্রম্যতা এড়াতে সক্ষম। যুক্তরাজ্যের হেলথ সিকিউরিটি এজেন্সি (ইউকেএইচএসএ) এর প্রধান নির্বাহী জেনি হ্যারিস বলেছেন, ‘এটি এখনো পর্যন্ত পাওয়া সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ভ্যারিয়েন্ট এবং এর সংক্রমণযোগ্যতা, তীব্রতা এবং ভ্যাকসিন-সংবেদনশীলতা সম্পর্কে আরও জানতে জরুরি গবেষণা চলছে।’ স্বাস্থ্য সচিব সাজিদ জাভিদ বলেছেন যে নতুন রূপটি ডেল্টা স্ট্রেনের চেয়ে ‘বেশি সংক্রমণযোগ্য’ এবং ‘বর্তমানে আমাদের কাছে যে ভ্যাকসিনগুলো রয়েছে তার ওপর কার্যকর না-ও হতে পারে’। ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারি গ্রান্ট শ্যাপস বলেছেন, দক্ষিণ আফ্রিকায় আবির্ভূত নতুন কোভিড-১৯ এর সঙ্গে লড়তে সব থেকে আগে দরকার সুরক্ষা।
মিঃ শ্যাপস স্কাই নিউজকে বলেছেন, ‘এখন সময় নষ্ট করলে চলবে না সঙ্গে সঙ্গে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে এবং যুক্তরাজ্যে প্রবেশের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরোপ করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের বিজ্ঞানীদের এই ভ্যারিয়েন্টের জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের ওপর কাজ করার জন্য কিছুটা সময় দিতে হবে, তবেই একে প্রতিহত করার উপায় জানা যাবে। তার আগে পর্যন্ত নিজেদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা প্রয়োজন।’ যদিও বিজ্ঞানীরা আশাবাদী যে, ইউকে ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে ভালো কাজ করছে।  রোজালিন্ড ফ্রাঙ্কলিন ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রফেসর জেমস নাইসমিথ বিবিসি রেডিও ৪-এর টুডে প্রোগ্রামে বলেছেন, ‘আমাদের হতাশ হওয়া উচিত নয়, ভ্যাকসিনগুলো নিশ্চয় কার্যকর হবে, তা যদি আপনার ভ্যাকসিন না হয়ে থাকে তবে আগে সেটি নিয়ে নিন। দ্বিতীয়ত, নতুন ওষুধ আসছে... আশা করা যায় এই নতুন ওষুধের ওপর করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্টের প্রভাব পড়বে না।  তাই এখনই মাথায় আকাশ ভেঙে পড়েছে বলে ভয় পাবার সময় আসেনি।‘ বৃটিশ এবং আইরিশ বাসিন্দারা যারা দক্ষিণ আফ্রিকা, বতসোয়ানা, এসওয়াতিনি, লেসোথো, নামিবিয়া এবং জিম্বাবুয়ে থেকে আগামী রোববার ২৯শে নভেম্বর যুক্তরাজ্যে ফিরবেন তাদের ইউকে সরকার-অনুমোদিত হোটেলে ১০ দিন  কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে, সেই খরচ বহন করবে সরকার।
সূত্র: independent.co.uk
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর