× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার , ৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ওমিক্রন আতঙ্কে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সম্মেলন শেষ মুহূর্তে স্থগিত

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) নভেম্বর ২৭, ২০২১, শনিবার, ১১:৫১ পূর্বাহ্ন

করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন আতঙ্কে শেষ মুহূর্তে স্থগিত হয়ে গেছে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ওয়ার্ল্ড ট্রেড অর্গানাইজেশন- ডব্লিউটিও) মন্ত্রীপর্যায়ের কনফারেন্স। চার বছর পর বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার এই বৃহৎ সম্মেলন (এমসি১২) হওয়ার কথা ছিল শুক্রবার। মৎস্য খাতে ভর্তুকি দেয়ার মতো বিভিন্ন ইস্যুতে অগ্রগতির চেষ্টা করে অচল অবস্থায় আছে এই সংগঠন। এরপর শুক্রবার জেনেভায় চার দিনের এই সম্মেলন শুরু হওয়ার কথা ছিল। এর মধ্য দিয়ে অনেকটা থিতু হয়ে পড়া এই সংগঠন নতুন প্রাণ সঞ্চার করবে বলে আশা করেছিল ডব্লিউটিও।

এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। তবু প্রতিকূলতার বিপরীতে প্রত্যাশা করছেন ডব্লিউটিও’র নতুন মহাপরিচালক এনগোজি ওকোনজো-আইওয়ালা। তিনি আশা করছেন করোনা ভাইরাসের টিকার প্যাটেন্ট তুলে নেয়ার বিষয়ে একটি চুক্তিতে অগ্রসর হতে পারবেন।এর মধ্য দিয়ে করোনা মহামারি মোকাবিলায় ডব্লিউটিও’র একটি সংশ্লিষ্ট ভূমিকার প্রমাণ হবে।
কিন্তু দৃশ্যত সবই গুঁড়েবালি। চারদিনের এই সম্মেলন শুরু হওয়ার মাত্র কয়েক ঘন্টা আগে তা স্থগিত হয়ে গেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্টকে ওমিক্রন নামকরণ করে সতর্কতা দেয়ার পরই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ ভ্যারিয়েন্টের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফ্লাইট বন্ধ করেছে অনেক দেশ। ৯ই নভেম্বর প্রথম এই ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়।

এনগোজি ওকোনজো-আইওয়ালা বলেছেন, সম্মেলন স্থগিত করার এই সিদ্ধান্ত নেয়া সহজ ছিল না। তিনি আরো বলেন, তা সত্ত্বেও একজন মহাপরিচালক হিসেবে আমার অগ্রাধিকার এমসি ১২-এর সব অংশগ্রহণকারীর স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা। এর মধ্যে আছেন মন্ত্রী, প্রতিনিধিরা এবং নাগরিক সমাজের সদস্যরা। পূর্ব সতর্কতার দিক দিয়ে আমাদেরকে এমন সিদ্ধান্ত নেয়াই ভাল।

ওদিকে ডব্লিউটিও’র জেনারেল কাউন্সিল চেয়ার ডাসিও ক্যাস্টিলো ১৬৪ সদস্য রাষ্ট্রের সবাইকে জরুরি বৈঠকে আহ্বান করেন। তাদেরকে তিনি ওমিক্রন পরিস্থিতি সম্পর্কে জানাতে চান। জানাতে চান ভ্রমণ বিধিনিষেধ এবং কোয়ারেন্টিনের প্রয়োজনীয়তার কথা। এমন অবস্থায় সব সদস্যই সম্মেলন স্থগিত করার পক্ষে সর্বসম্মত রায় দিয়েছেন। এনগোজি ওকোনজো-আইওয়ালা বলেছেন, ভ্রমণ বিধিনিষেধের কারণে অনেক দেশের মন্ত্রীরা জেনেভা যেতে পারবেন না। ফলে এভাবে সম্মেলন করলে তাতে সমান অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা যেতো না।

এর আগে কাজাখস্তানের রাজধানী নূর-সুলতানে ২০২০ সালের জুনে হওয়ার কথা ছিল ডব্লিউটিও’র সম্মেলন। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে সেই সম্মেলন স্থগিত হয়ে যায়। ডাসিও ক্যাস্টিলো বলেছেন, পরিস্থিতি অনুকূলে এলেই যত দ্রুত সম্ভব তারা এই সম্মেলন করবেন। সাধারণত প্রতি দু’বছর পর পর এই সম্মেলন হয়ে থাকে। এবার এই সম্মেলনে কমপক্ষে ১০০ মন্ত্রীসহ রাষ্ট্রনেতারা এবং ৪ হাজারের মতো অতিথি সমবেত হওয়ার কথা ছিল জেনেভাতে। এখানেই ডব্লিউটিও অবস্থিত।

সংকটে আটকে পড়া সংগঠনকে কতটা দাঁড় করাতে পারেন তার জন্য এই সম্মেলনকে দেখা হচ্ছে এনগোজি ওকোনজো-আইওয়ালার জন্য একটি টেস্ট হিসেবে। তিনি নাইজেরিয়ার সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী। গত মার্চে তিনি প্রথম আফ্রিকান এবং প্রথম নারী হিসেবে ডব্লিউটিওর নেতৃত্বে আসেন।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর