× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার , ৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

বিশ্ব বাণিজ্যে প্রভাব ফেলেছে ওমিক্রন, বিধিনিষেধে বিলম্বের অভিযোগ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) নভেম্বর ২৭, ২০২১, শনিবার, ১:১৮ অপরাহ্ন

করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন। এ আতঙ্কে দেশে দেশে ভ্রমণ বিধিনিষেধ দেয়া হয়েছে। শুক্রবার একদিনেই তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি কমে গেছে প্রায় ১০ ডলার। শেষ মুহূর্তে স্থগিত করা হয়েছে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা ডব্লিউটিও’র অতি গুরুত্বপূর্ণ সম্মেলন। সারা পৃথিবীর বাজার ব্যবস্থাকে গ্রাস করেছে যেন এই ভ্যারিয়েন্ট। বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, এই ভ্যারিয়েন্ট বিশ্বজুড়ে নতুন এক উদ্বেগ সৃষ্টি করে শুক্রবার।

এরই মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকার দেশগুলো থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বা বিধিনিষেধ দিয়েছে বৃটেন, যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন, জাপান, ইরান, ভারতসহ বহু দেশ। এর ফলে কমপক্ষে এক বছরের মধ্যে আটলান্টিকের দুইপাড়ে স্টক মার্কেটে বড় রকম ধস নেমেছে।
মহামারি বিশেষজ্ঞরা সতর্কতায় বলছেন, ওমিক্রন থামাতে এই ভ্রমণ বিধিনিষেধ দিতে দেরি হয়ে গেছে। এর ফলে এই ভ্যারিয়েন্ট বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকতে পারে।

প্রথম এই রূপান্তরিত ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকায়। তারপর এর সন্ধান মিলেছে বেলজিয়াম, বোতসোয়ানা, ইসরাইল এবং হংকংয়ে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসনের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, সোমবার থেকে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং প্রতিবেশী কয়েকটি দেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ বিধিনিষেধ কার্যকর হচ্ছে। আরো একটু এগিয়ে গিয়েছে কানাডা। তারা বলেছে, ওইসব দেশের জন্য তাদের সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে।

বৃটেন, ইউরোপিয়ান দেশগুলো ও অন্যরা ওইসব দেশ থেকে ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞা ঘোষণার পর এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে কানাডা।
ওমিক্রন শনাক্ত হলেও তার রূপান্তর এবং বিদ্যমান টিকা ও চিকিৎসা পদ্ধতির সঙ্গে কি রকম আচরণ করে তা জানতে বিজ্ঞানীদের আরো কয়েক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। তবে তার আগেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা একে ‘ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। এই ক্যাটেগরিতে এটি হলো পঞ্চম ভ্যারিয়েন্ট। এর আগে স্পাইক প্রোটিন। মূল করোনা ভাইরাসের থেকে এসব ভ্যারিয়েন্টের স্পাইক প্রোটিন নাটকীয়ভাবে আলাদা। এ কথা বলেছে ইউকে হেলথ সিকিউরিটি এজেন্সি। অনেক বিজ্ঞানীও একই রকম সতর্কতা দিয়েছেন।

বৃটেনের ইউনিভার্সিটি অব ওয়ারউইকের ভাইরাস বিষয়ক বিশেষজ্ঞ লরেন্স ইয়াং বলেছেন, করোনা ভাইরাসের নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট খুবই উদ্বেগের। এখন পর্যন্ত আমরা এর যতগুলো রূপান্তর দেখেছি, তার মধ্যে এই ভ্যারিয়েন্ট সবথেকে রূপান্তরিত। টিকার ফলে যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সৃষ্টি হয়, এই ভ্যারিয়েন্ট তাকে অতিক্রম করতে পারে।
এসব উদ্বেগে আর্থিক বাজারে অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে বিমানসংস্থাগুলোর স্টক এবং অন্যান্য ভ্রমণ সংক্রান্ত সেক্টরে তা সবচেয়ে বেশি আঘাত করেছে। এক ধাক্কায় একদিনে তেলের দাম পড়ে গেছে ব্যারেলপ্রতি প্রায় ১০ ডলার। শতকরা ২.৫ ভাগ পতন নিয়ে শুক্রবার বন্ধ হয়ে গেছে ডো জন্স ইন্ট্রাস্ট্রিয়াল এভারেজ।

২০২০ সালের অক্টোবরের পর এটাই এর সবচেয়ে খারাপ দিন। ১৭ মাসের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ দিন ছিল ইউরোপিয়ান স্টকের। ক্রুজ পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান কার্নিভ্যাল করপোরেশন, রয়েল ক্যারিবিয়ান ক্রুজেস এবং নরওয়েজিয়ান ক্রুজ লাইনের প্রতিটির দরপতন হয়েছে শতকরা ১০ ভাগের বেশি। ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স, ডেল্টা এয়ারলাইন্স এবং আমেরিকান এয়ারলাইন্সেরও শেয়ার মূল্য প্রায় একই পরিমাণে কমে গেছে।
খুব বেশি দেরি হয়ে গেছে?
চীনের কেন্দ্রীয় অংশে প্রথম শনাক্ত হওয়ার পর দু’বছরের মধ্যে সারা দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। এরই মধ্যে কমপক্ষে ২৬ কোটি মানুষকে আক্রান্ত করেছে। মারা গেছেন কমপক্ষে ৫৪ লাখ। ইউনিভার্সিটি অব হংকংয়ের মহামারি বিশেষজ্ঞ বেন কাউলিং বলেছেন, এবার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে বিধিনিষেধ আরোপ করায় হয়তো খুব বেশি বিলম্ব হয়ে গেছে। খুব সম্ভব এই ভাইরাস অন্য স্থানগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে। তাই, এখন যদি আমরা ঘরের দরজা বন্ধ করি, তা সম্ভবত খুব বেশি দেরি হয়ে যাবে।

এই ভ্যারিয়েন্ট এমন এক সময়ে শনাক্ত হয়েছে যখন ইউরোপ এবং যুক্তরাষ্ট্র শীত মৌসুমে প্রবেশ করছে। এ সময়ে বড়দিনের প্রাক্কালে অধিক থেকে অধিক মানুষ আবদ্ধ স্থানে বা খোলা স্থানে সমবেত হবেন। ফলে এমন ক্ষেত্র এই ভাইরাসের বংশ বিস্তারের এক উর্বর ক্ষেত্র হয়ে উঠবে। যুক্তরাষ্ট্রে ছুটির সময়ে কোনাকাটার মৌসুম শুরুর প্রথমদিন ছিল শুক্রবার। এদিন অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে দোকানপাটে ছিল কম মানুষের উপস্থিতি।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর