× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ৮ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনেও সংঘর্ষ কেন্দ্র দখল, নিহত ৩

প্রথম পাতা

বাংলারজমিন ডেস্ক
২৯ নভেম্বর ২০২১, সোমবার

হামলা-সংঘর্ষ, কেন্দ্র দখল, জালভোট, গোলাগুলি, প্রকাশ্যে সিল মারাসহ নানা ঘটনার মধ্যদিয়ে শেষ হয়েছে তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। আধিপত্য বিস্তার ও কেন্দ্র দখলের লড়াইয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হয়েছেন অন্তত ৩ জন। এছাড়াও বিভিন্ন কেন্দ্র দখল ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রিজাইডিং অফিসার, পুলিশসহ আহত হয়েছেন আরও অনেকে। ৪ মেম্বার প্রার্থীসহ আটকও হয়েছেন বেশ কয়েকজন। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্টে-

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা জানান, লক্ষ্মীপুরে রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সজিব হোসেন নিহত হয়েছেন। গতকাল নির্বাচন চলাকালীন সময়ে বিকাল পৌনে ৪টার দিকে ওই ইউনিয়নের নয়নপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্রের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহেনাজ আক্তার ও বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী আমির হোসেন খানের সমর্থকদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ছাত্রলীগ নেতা সজিব হোসেন আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহেনাজ আক্তারের সমর্থক ছিলেন।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বিকাল পৌনে ৪টার দিকে কেন্দ্রের বাইরে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহেনাজ আক্তার ও বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী আমির হোসেন খানের সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আমির হোসেনের সমর্থক মাসুদ ছাত্রলীগ নেতা সজিব হোসেনের মাথায় আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত হলে সজিব হোসেনকে ঢাকা নেয়ার পথে মারা যায়। রামগঞ্জ থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা থেকে জানান, নির্বাচনী সহিংসতায় খুলনার তেরখাদা উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নে বাবুল শিকদার (৩৮) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। তিনি আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মহসিনের সমর্থক ছিলেন। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, নির্বাচনী বিরোধকে কেন্দ্র করে গত শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ১৫ মিনিটের দিকে তেরখাদা উপজেলাধীন মধুপুর ইউনিয়নের কুলাপাটগা?তি গ্রামের বাবুল শিকদারকে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী কামাল হোসেনের লোকজন হাতুড়িসহ ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী মাথায় গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত বাবুল শিকদারকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে পাঠান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল ভোর ৬টা ১৫ মিনিটে বাবুল শিকদার মৃত্যুবরণ করেন। তেরখাদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহুরুল আলম বলেন, ঘটনার পর থেকে হামলার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর থেকে জানান, ইউপি  নির্বাচনে পোস্টার লাগানোকে কেন্দ্র করে যশোরের শার্শায় দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আনারস প্রতীকের সমর্থক কুতুব উদ্দীন (৩৫) নিহত হয়েছেন। গত শনিবার রাত ৯টার দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় ১২ জন কমবেশি আহত হয়েছেন। যশোর জেনারেল হাসপাতালের ডা. নাহিদ শাহরিয়ার সাব্বির তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আলাউদ্দিন (৫৫) নামে আহত আরেক ব্যক্তিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বাকিদের যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। এদিকে, গতকাল দুপুর ১টার দিকে শার্শা উপজেলার নিজামপুর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের গোড়পাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের পাশে নির্বাচনী সহিংসতায় বাবা আলিমুর রহমান (৫৫) ও তার ছেলে রাব্বী (৩০) ছুরিকাহত হয়েছেন। ভোটার স্লিপ বিতরণকালে প্রতিপক্ষ চেয়ারম্যান প্রার্থী আশরাফুল আলম বাটুলের (আনারস) সমর্থকরা তাদের ছুরিকাহত করে। আহত বাবা-ছেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী সেলিম রেজা বিপুলে (চশমা)’র সমর্থক।

স্টাফ রিপোর্টার, কুমিল্লা থেকে জানান, কুমিল্লায় ভোটগ্রহণ চলাকালে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ককটেল বিস্ফোরণ, সংঘর্ষ ও সহিংসতার ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা ও প্রিজাইডিং অফিসারসহ কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছেন। সহিংসতার কারণে বরুড়া উপজেলার ঝলম ইউনিয়নের ঢেউয়াতলী, চিতড্ডা ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও খোশবাশ উত্তর ইউনিয়নের আদমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোটগ্রণ স্থগিত করা হয়েছে। বরুড়া থানার ওসি ইকবাল বাহার মজুমদার জানান, ঢেউয়াতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট চলাকালে বেলা ১১টার দিকে কয়েকজন সন্ত্রাসী কেন্দ্র দখল করার চেষ্টা করলে কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার গোলাম সারোয়ার ভূঁইয়া ও এসআই আবু হানিফ বাধা দেন। এ সময় সন্ত্রাসীরা প্রিজাইডিং অফিসারকে ছুরিকাঘাত ও পুলিশ কর্মকর্তার কোমরে রাম দা দিয়ে কোপ দেয়। এ সময় পুলিশ কর্মকর্তার পিস্তলটি সন্ত্রাসীরা ছিনিয়ে নেয়ার পর কেন্দ্রের পাশে ফেলে পালিয়ে যাওয়ার পর উদ্ধার করা হয়।

নরসিংদী প্রতিনিধি জানান,  নরসিংদীতে ইউপি নির্বাচনে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় প্রতিপক্ষের কমপক্ষে ২০ জন গুলিবিদ্ধসহ ৫০ জন আহত হয়েছেন। কেন্দ্র দখলের কারণে কালাইগোবিন্দপুর কেন্দ্রে ৩০ মিনিট ভোটগ্রহণ বন্ধ হয়ে যায়। নরসিংদীর চরাঞ্চল করিমপুর, নজরপুরের দিলারপুর, কালাই গোবিন্দপুর, শীলমান্দি ও আমদিয়ায় এসব ঘটনা ঘটে। পরে আহতদের উদ্ধর করে সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে অবস্থার অবনতি হলে ৫ জনকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

স্টাফ রিপোর্টার, কিশোরগঞ্জ থেকে জানান, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার একটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। কেন্দ্রটি হচ্ছে লতিবাবাদ ইউনিয়নের কাটাবাড়িয়া এ আর খান উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র। কেন্দ্রটিতে ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করা হয়। জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ আশ্রাফুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বলা দেড়টার দিকে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মারিয়া ইউনিয়নের কাতিয়ারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখলের চেষ্টা করেন মো. ওমর হোসেন বকুল নামে এক ইউপি সদস্য প্রার্থী। এ সময় বেশ কয়েকজন গ্রাম পুলিশ ও আনসার সদস্যকে আহত করে প্রিজাইডিং অফিসারের কক্ষে হামলা চালানো হয়। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ কেন্দ্রটিতে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ ও আনসার সদস্যরা মোট ১৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়েন। ৩০ মিনিট বন্ধ থাকার পর দুপুর ২টা ৫ মিনিটে কেন্দ্রটিতে পুনরায় ভোটগ্রহণ শুরু করা হয়।

ফেনী প্রতিনিধি জানান, ফেনীর ছাগলনাইয়া ও পরশুরাম উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করায় ৪ মেম্বার প্রার্থীসহ ১৩ জনকে আটক করা হয়েছে। একটি কেন্দ্রে প্রার্থীর পক্ষে কাজ করায় নির্বাচনী দায়িত্ব থেকে পোলিং অফিসারকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। ছাগলনাইয়া উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে উত্তর মন্দিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রসহ বিভিন্ন স্থানে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে।

চাঁদপুর প্রতিনিধি জানান, চাঁদপুর মতলব দক্ষিণ উপজেলার ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনকালে এক স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মতলব দক্ষিণ উপজেলার উপাধি দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং বাকরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই ইউনিয়নের আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ইউসুফ পাটোয়ারী ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করতে আসেন। কেন্দ্রের প্রবেশ দ্বারে আসা মাত্রই হঠাৎ নৌকা প্রতীকের প্রার্থী গোলাম মোস্তফার কয়েকজন সমর্থক তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি জানান, টাঙ্গাইলের ঘাটাইল পৌরসভা নির্বাচনে ভোট দেয়াকে কেন্দ্র করে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দুইজন আহত হয়েছেন। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পৌরসভার বানিয়াপাড়া এলাকায় দারুস সুন্নাহ হাফিজিয়া ও নুরানী মাদ্রাসা এবং এতিমখানা কেন্দ্রে এই ঘটনা ঘটে। জানা যায়, পৌরসভার বানিয়াপাড়া এলাকার ৪নং ওয়ার্ডের কেন্দ্রে কাউন্সিলর প্রার্থী আবু হায়দার লিটন সরকার (বোতল) প্রতীকের এজেন্ট ও অপর প্রার্থী আশরাফুল জামান মামুনের (উটপাখি) সমর্থকের সঙ্গে ভোট দেয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় আবু হায়দার লিটনের ছোট ভাই টিটু সরকারসহ দুইজন আহত হয়। এছাড়াও মেহেরপুরের গাংনীসহ দেশের বিভিন্নস্থানে সহিংসতা ছড়িয়েছে তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর