× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ১৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে এক-তৃতীয়াংশ কর্মীই যৌন হয়রানির শিকার

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) নভেম্বর ৩০, ২০২১, মঙ্গলবার, ৫:২৮ অপরাহ্ন

অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টের এক-তৃতীয়াংশ কর্মীই যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে এক তদন্তে উঠে এসেছে। সাবেক কর্মী ব্রিটানি হিগিনস তার সহকর্মীদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনলে এই তদন্ত শুরু হয়। তার ওই অভিযোগের পর এ বছরের প্রথম দিকে রাজধানী ক্যানবেরাতে আরও অনেকেই যৌন হয়রানির শিকার হওয়ার অভিযোগ আনেন। অভিযোগকারীদের বেশিরভাগই নারী।

তদন্ত রিপোর্টে বলা হয়েছে, ৫১ শতাংশ কর্মীকেই কখনো না কখনো গালমন্দ, যৌন হয়রানি কিংবা কখনো সত্যিই যৌন আক্রমণের শিকার হতে হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন এই রিপোর্টকে ভয়াবহ বলে বর্ণনা করেছেন। যদিও নারী বিষয়ক ইস্যুতে কড়া গলায় কথা বলেন না এমন অভিযোগ রয়েছে মরিসনের বিরুদ্ধে।

গত মঙ্গলবার পার্লামেন্টে রিপোর্টটি জমা দেয়া হয়।
এই রিপোর্ট তৈরিতে ১ হাজার ৭২৩ ব্যাক্তি ও ৩৩ সংস্থার সাক্ষাৎকার নেয়া হয়েছে। এতে জানা গেছে, ৬৩ শতাংশ নারী পার্লামেন্ট সদস্যই নানা ভাবে হেনস্থার শিকার হয়েছেন। এক নারী এমপি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, অনেক পুরুষ এমপি নানা সময়ে হাত ধরেন, কোলে তোলার চেষ্টা করেন, ঠোটে চুমু দিয়ে ফেলেন, বিভিন্ন স্থানে ধরার চেষ্টা করেন। এ ধরণের যৌন হেনস্থার প্রতিবাদে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন অংশে হাজার হাজার মানুষ প্রতিবাদ করেছেন। রিপোর্টে যৌন হেনস্থা বন্ধে লিঙ্গ সমতা নিশ্চিতের সুপারিশ করা হয়েছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
মামুন
১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ১১:৩১

্মজা নেয় দুজনে; দোষ হয় একজনের।

মোতাহার
১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ৮:৫২

একেই বলে নারীর ক্ষমতায়ন।

অন্যান্য খবর