× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ১৪ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

বিশেষ এক কারণে একটি ক্যাটাগরি ফাঁকা রেখে দেয়া হবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

বিনোদন

কামরুজ্জামান মিলু
১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার

২০২০ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের সম্ভাব্য তালিকা শেষ করেছে জুরিবোর্ড। পুরস্কারে সম্ভাব্য বিজয়ীদের তালিকাও পাঠানো হচ্ছে তথ্য মন্ত্রণালয়ে। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের একমাত্র রাষ্ট্রীয় ও সর্বোচ্চ চলচ্চিত্র পুরস্কার ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার’। এই পুরস্কার প্রদান করে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়। সেখান থেকে ক্যাবিনেটের অনুমোদনের পরই ক্যাটাগরিভিত্তিক জয়ীদের নাম প্রকাশ করা হবে বলে জানান জুরিবোর্ডের সদস্য নিজামুল কবির।

তিনি মানবজমিনকে বলেন, জাতীয় পুরস্কারের ২৮টি ক্যাটাগরির মধ্যে এ বছর ২৭টি ক্যাটাগরিতে পুরস্কারের জন্য সুপারিশ করেছে জুরিবোর্ড। ১টি ক্যাটাগরিতে ফুল নাম্বার দেওয়ার মত কাউকে পাওয়া যায়নি। তাই এটি ফাঁকাই থাকার কথা রয়েছে। তবে সেরা অভিনেত্রী, অভিনেতা, খলনায়ক, পরিচালক, নৃত্য পরিচালক, সাজসজ্জার তালিকা করা হয়েছে।

নিজামুল কবির আরও জানিয়েছেন যে, মঙ্গলবার জুরিবোর্ডের শেষ সভায় তাঁদের পক্ষ থেকে মনোনয়ন প্রক্রিয়ার কাজ শেষ করেছি।
তালিকা তথ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হচ্ছে। সেখান থেকে অনুমোদন আসার পরই নাম প্রকাশ করা হবে।

এর আগে গেল আগস্টে এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ২০২০ সালে মুক্তি পাওয়া সিনেমা আহ্বান করে তথ্য মন্ত্রণালয়। এরপর জমা পড়ে মোট ২৭টি সিনেমা। এর মধ্যে রয়েছে ১৪টি পূর্ণদৈর্ঘ্য, ৭টি স্বল্পদৈর্ঘ্য ও ৬টি প্রামাণ্যচিত্র। তবে কোন দুটি ক্যাটাগরি এবার ফাঁকা থাকবে সে বিষয়ে কিছু বলতে রাজি হননি জুরি বোর্ডের এই সদস্য।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর