× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার , ৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ইউক্রেনে আগ্রাসন চালালে রাশিয়াকে কড়া মূল্য দিতে হবে- যুক্তরাষ্ট্র

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) ডিসেম্বর ৩, ২০২১, শুক্রবার, ১১:৩০ পূর্বাহ্ন

ইউক্রেনে আগ্রাসন রাশিয়াকে কঠোর মূল্য দিতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। এর পরিবর্তে তিনি সংকট সমাধানে কূটনৈতিক উপায় অবলম্বনের আহ্বান জানান। বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, বৃহস্পতিবার তিনি রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে বৈঠক করেন। স্টকহোমে এই দুই নেতার মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠককে আন্তরিক বলে অভিহিত করেন ব্লিনকেন এবং তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন শিগগিরই আলোচনায় বসবেন।

বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেন, ইউক্রেনে আর কোন আগ্রাসন চালালে রাশিয়াকে কঠোর মূল্য দিতে হবে। এজন্য আমাদের ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে নিয়ে আমরা কঠোর ব্যবস্থা নিতে বদ্ধপরিকর। এসব বিষয়ে রাশিয়াকে আমরা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছি। আমরা বলেছি, তারা যেসব কর্মকাণ্ড করছে তার সমাধান হওয়া আবশ্যক।

এরই মধ্যে রাশিয়া অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করেছে সীমান্তে। ফলে ওেই অঞ্চলে দেখা দিয়েছে তীব্র উত্তেজনা।
তা প্রশমিত করার দায়িত্ব রাশিয়ার। তাদেরকে স্বাভাবিক শান্তিপূর্ণ অবস্থানে ফেরত আসতে হবে। ভয়-ভীতি প্রদর্শন থেকে বিরত থাকতে হবে এবং ইউক্রেনকে অস্থিতিশীল করার প্রচেষ্টা থেকে বিরত থাকতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সঙ্গে বৈঠকের আগে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ সাংবাদিকদের বলেছিলেন, কিয়েভের সঙ্গে আলোচনায় প্রস্তুত মস্কো। প্রেসিডেন্ট পুতিন আর কোন যুদ্ধ চান না।

ইউক্রেন বলছে, তাদের সঙ্গে দীর্ঘ সীমান্ত এলাকায় কমপক্ষে ৯০ হাজার অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করেছে রাশিয়া। পক্ষান্তরে ইউক্রেনের বিরুদ্ধেও একই রকম অভিযোগ করেছে রাশিয়া।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর