× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

দুর্নীতির দায়ে বরখাস্ত হওয়া চেয়ারম্যানকে পুনরায় মনোনয়ন দিল আওয়ামী লীগ

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক
(১ মাস আগে) ডিসেম্বর ৪, ২০২১, শনিবার, ৭:০৪ অপরাহ্ন

চাল আত্মসাৎসহ বিভিন্ন দুর্নীতির দায়ে বরখাস্ত হওয়া ভোলা সদরের রাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান খান পুনরায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন। পঞ্চম ধাপে আগামী ৫ই জানুয়ারি এ ইউনিয়নে নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। দুর্নীতির অভিযোগে মিজানুর রহমান তার মেয়াদকালে সাময়িক বরখাস্ত ছিলেন।

গত বছরের ২৩শে মার্চ ১২ জন ইউপি সদস্য তার বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) কাছে লিখিত অভিযোগ দেন। এ নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করেন তৎকালীন জেলা প্রশাসক (ডিসি)। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে মিজানুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করেন ডিসি। পরে মন্ত্রণালয় থেকে একই বছরের ২৩শে এপ্রিল মিজানুরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

বরখাস্তের পর মিজানুর রহমান উচ্চ আদালতে রিট আপিল করলে বিচারক চলতি বছরের ১৩ই সেপ্টেম্বর তিন মাসের অস্থায়ী স্থগিতাদেশ দেন। যা ১৩ই ডিসেম্বর পর্যন্ত বহাল আছে।

ভোলা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মমিন জানান, তৃণমূলের নেতাদের ভোট মূল্যায়ন করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রেজাউল করিমকে ১ নম্বরে রেখে কেন্দ্রে তালিকা পাঠানো হয়।
কিন্তু কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ড মিজানুরকেই আবার মনোনয়ন দিয়েছে। এর কারণ, তালিকায় ১ নম্বরে থাকা রেজাউল ২০১১ ও ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন।

১২ ইউপি সদস্যের করা লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, চেয়ারম্যান হওয়ার পর মিজানুর রহমান ইউনিয়নে আসা বরাদ্দ লোপাট করেন। ইউনিয়নের সরকারি গাছ বিনা দরপত্রে কেটে দুই লাখ টাকায় বিক্রি করেন। এ ছাড়া টাকার বিনিময়ে বয়স্ক ভাতা, বিধবা-স্বামী পরিত্যক্তা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড বিতরণ করেছেন। সবশেষ জেলেদের আপৎকালীন সময়ে যে চাল দেয়া হয়েছে, সেই চালের ৪০ মেট্রিক টন আত্মসাৎ করেন।

তবে মিজানুর রহমান খান তার বিরুদ্ধে যত অভিযোগ উঠেছে তা সব মিথ্যা বলে জানিয়েছেন।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
jalal
৪ ডিসেম্বর ২০২১, শনিবার, ৯:৩৪

নৌকার ভরাডুবি এবং হীজরার কাছে হেরে যাওয়ার কারণটা এখানে,

Desher Bhai
৪ ডিসেম্বর ২০২১, শনিবার, ৯:৩০

Someone must have received bribe.

অন্যান্য খবর