× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ১৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

দেবিদ্বার ডাক বিভাগের অফিসে নিরাপত্তা কর্মীর লাশ

বাংলারজমিন

দেবিদ্বার (কুমিল্লা) প্রতিনিধি
৫ ডিসেম্বর ২০২১, রবিবার

কুমিল্লার দেবিদ্বারে ডাক অফিস থেকে মোসলেহ উদ্দিন মুসলু মোল্লা (৫০) নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকাল ১০টায় দেবিদ্বার ডাক বিভাগের অফিস থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি গত দুই বছর ধরে জেলা পরিষদ ডাকবাংলোর সামনে ডাক বিভাগের অফিসে নৈশপ্রহরীর কাজ করছিলেন। মোসলেহ উদ্দিন মুসলু মোল্লা দেবিদ্বার উপজেলার বড় আলমপুর গ্রামের মৃত করম আলী মোল্লার ছেলে। তার স্ত্রী মমতাজ বেগম জানান, প্রতিদিন সকালে ডিউটি শেষে সকাল ৫-৬টার দিকে বাড়ি চলে যায়। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টা বাজলেও বাড়ি না ফেরায় আমি নিজে ডাক অফিসের কক্ষে এসে দেখি দরজা খোলা, ভেতরে গিয়ে দেখি বিছানায় উপুর হয়ে আমার স্বামী পড়ে আছে। আমি অনেক ডাকাডাকি করলেও কোনো সাড়া-শব্দ না পেয়ে কয়েকজন লোককে খবর দেই। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।
যেহেতু দরজা খোলা ছিল কেউ আমার স্বামীকে মেরে ফেলতে পারে। মোল্লাবাড়ির বাসিন্দা মো. ইকবাল হোসেন রুবেল জানান, তিনি দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা ডাক বিভাগের অফিসের নৈশপ্রহরীর কাজ করতেন। দিনের বেলায় চেয়ারম্যান বাড়ির সংলগ্ন রোডের মাথায় ধোপার কাজ করতেন। শনিবার সকালে অনেক ডাকাডাকির পরেও ঘুম থেকে না ওঠায় স্থানীয় লোকজন তার কক্ষে প্রবেশ করে তার মরদেহ দেখতে পায়। দেবিদ্বার থানা পুলিশের পরিদর্শক মারুফ রহমান বলেন, ‘আমরা ধারণা করছি, তিনি ঘুমের মধ্যে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন। তার শরীরে কোনো আঘাত বা ক্ষতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তার পরিবার এসে লাশ শনাক্ত করেছে। তবুও যেহেতু সরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে মারা গেছেন আমরা মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি।
ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত বলা যাবে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর