× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

সরিষাবাড়ীতে চাচার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা

বাংলারজমিন

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি
৬ ডিসেম্বর ২০২১, সোমবার

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এক প্রতিবন্ধীসহ দুই বোনকে মারধর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে চাচা আ. আওয়াল ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ সময় তারা বসতঘরে হামলা, ভাঙচুর ও স্বর্ণালঙ্কার, নগদ টাকাসহ ঘরে থাকা মূল্যবান আসবাবপত্র লুটে নেয়। এ ঘটনায় শনিবার রাতে ঐ দুই বোনের মা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। আহতরা হলো- উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের কান্দারপাড়া গ্রামের গোলাম রব্বানীর মেয়ে ও সরিষাবাড়ী মাহমুদা সালাম মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী সাদিয়া আক্তার (১৭) ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছুয়া আক্তার (১২)। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। জানা যায়, কান্দারপাড়া গ্রামের মৃত তাজুল ইসলামের দুই ছেলে গোলাম রব্বানী ও আব্দুল আওয়ালের মধ্যে বসতবাড়ির জমি ও পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। গত শুক্রবার সকালে দুই মেয়েকে বাড়িতে রেখে অসুস্থ মাকে দেখতে বাপের বাড়ি যান গোলাম রব্বানীর স্ত্রী জেসমিন বেগম। এ সুযোগে দেবর আওয়াল ও তার স্ত্রী বীথি বেগম বাড়িতে গিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে।
এ সময় কিশোরী সাদিয়া প্রতিবাদ করলে তার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আসবাবপত্র ভাঙচুর করতে থাকে। ভাঙচুরে বাধা দিলে সাদিয়া ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছুয়াকে এলোপাতাড়ি মারধর ও শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটায়। এ সময় ঘরে থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণের গহনা ও দামি আসবাবপত্র লুটে নেয়। দুই বোনের ডাক চিৎকারে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় গোলাম রব্বানীর স্ত্রী জেসমিন বেগম বাদী হয়ে দেবর আওয়াল ও তার স্ত্রী বীথি বেগমের বিরুদ্ধে তারাকান্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে মামলা দায়ের করেন। এ ব্যাপারে তারাকান্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ বলেন, এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর