× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

পুনরায় ভোট গণনার দাবিতে পূর্বধলায় মানববন্ধন

বাংলারজমিন

নেত্রকোনা প্রতিনিধি
৬ ডিসেম্বর ২০২১, সোমবার

তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার হোগলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. সাইদুল ইসলাম পুনরায় ভোট গণনার দাবি জানিয়েছেন। এলাকাবাসীর উদ্যোগে গতকাল দুপুরে ইউনিয়নের বিকুনীয় বাজারে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। হোগলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী উপজেলা কৃষক লীগের সহ-সভাপতি মো. সাইদুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলনে জানান, ওই ইউনিয়নে মৃত ভোটার, প্রবাসী ভোটার, অনুপস্থিত ভোটারের ভোট দেয়া হয়েছে। পানিসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের তালিকায় গরমিল রয়েছে। চশমা প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রাথী সিরাজুল ইসলাম খোকন নিজ কেন্দ্র থেকে নৌকার এজেন্টকে বের করে দেয়া হয়েছে। পরদিন ওই কেন্দ্রে ব্যালট পাওয়া গেছে। নৌকার এজেন্টদের বেলা ১টার আগেই স্বাক্ষর নিয়ে ভোটকেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া জামিয়া কাউমিয়া দারুল উলুম সেহলা মাদ্রাসা কেন্দ্রে প্রথমে নৌকার ভোট ১ হাজার ১৮৩টি গণনা করে ঘোষণা দেয়া হয়।
কিন্তু রেজাল্ট সিটে ১ হাজার ৮৩টি ভোট দেখানো হয়। পানিসা কেন্দ্রে নৌকার ভোট ৭৪৭ এবং চশমা প্রতীকের ১৩শ’ গণনা করে পরে দেখানো হয় নৌকার ৬৪৭ ভোট ও চশমা প্রতীকের ১ হাজার ৩৭৯ ভোট। উপজেলা সভাকক্ষে ভোট গণনার সময় ওই দুইটা ভোট কেন্দ্রের ভোট গণনার জন্য রিটার্নিং অফিসার বরাবরে আবেদন করলেও কোনো কাজ হয়নি।
অজ্ঞাত কারণে চশমা প্রতীকের প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম খোকনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। এরই প্রতিবাদে গতকাল ইউনিয়নের বিকুনীয়া বাজার সড়কে বেলা সাড়ে ১২টা থেকে আধা ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মজিদ ও আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী মো. সাইদুল ইসলাম প্রমুখ। মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে ইউনিয়নের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
তবে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম খোকন অভিযোগ সম্পর্কে বলেন, অভিযোগটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। কোনো প্রার্থীর এজেন্টকে কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়নি। ভোটাররা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিয়েছে।
পূর্বধলা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোনো কারচুপি হয়নি। পরাজিত প্রার্থী অভিযোগ করতেই পারেন। তবে তার অভিযোগ সত্য নয়।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর