× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ভারতে বাড়ছে ওমিক্রন সংক্রমণ, বৃটেনে নতুন বিধিনিষেধ

প্রথম পাতা

মানবজমিন ডেস্ক
৬ ডিসেম্বর ২০২১, সোমবার

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে তাঞ্জানিয়া ফেরত এক ব্যক্তির দেহে করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট পৃষ্ঠা ৮ কলাম ১
ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। তাকে ভর্তি করা হয়েছে দিল্লির লোক নায়েক জয়প্রকাশ হাসপাতালে (এলএনজেপি)। এ নিয়ে ভারতে ওমিক্রনে আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫-এ। দক্ষিণ আফ্রিকা ও যুক্তরাষ্ট্রেও বাড়ছে সংক্রমণের সংখ্যা। অন্যদিকে বৃটেন সফরে নতুন বিধিনিষেধ দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার গ্রিনিচ মিন টাইম রাত চারটা থেকে তা কার্যকর হবে। এর অধীনে বৃটেন সফরে যেতে হলে যেকোনো দেশের ভ্রমণকারীকে ভ্রমণ শুরুর আগে পিসিআর টেস্টে করোনা নেগেটিভ দেখাতে হবে অথবা ল্যাটারেল ফ্লো করাতে হবে। এ খবর জানিয়েছে অনলাইন ডেইলি মেইল, বার্তা সংস্থা এএফপি, ভারতের সরকারি বার্তা সংস্থা পিটিআই ও অনলাইন ডন।
ভারতের এক কর্মকর্তা বলেছেন, ন্যাশনাল সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোলে ১২টি নমুনা পাঠানো হয়। এর মধ্যে একজনের দেহে ওমিক্রন সংক্রমণ পাওয়া গেছে। আক্রান্ত ব্যক্তি একজন ভারতীয়। দু’চারদিন আগে তিনি তাঞ্জানিয়া থেকে দেশে ফিরেছেন। এর আগে প্রথম দু’জনের শরীরে ওমিক্রন শনাক্ত হয় এ সপ্তাহের শুরুর দিকে কর্ণাটক রাজ্যে। পরে আরও দু’জন শনাক্ত হন গুজরাট ও মহারাষ্ট্রে। আর সর্বশেষ ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হলো দিল্লিতে। ওদিকে যেকোনো দেশ থেকে বৃটেন ভ্রমণকারীদের জন্য নতুন বিধিনিষেধ আরোপ করেছে বৃটিশ সরকার। এর অধীনে ভ্রমণ শুরুর আগে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে করোনাভাইরাস নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে।
গত ২৫শে নভেম্বর ওমিক্রন প্রথম শনাক্ত হয় দক্ষিণ আফ্রিকায়। একে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন হিসেবে শ্রেণিবিভাগ করেছে। দিল্লিতে সেই ভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী সনির্বন্ধ অনুরোধ জানিয়ে বলেছেন- প্রধানমন্ত্রী সাহেব, অনুগ্রহ করে ফ্লাইট বন্ধ করুন। একই আহ্বান জানিয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রী মোদিকে একটি চিঠিও লিখেছেন।
বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে, ওমিক্রন সংক্রমণের আতঙ্কে বৃটিশ সরকার তার বিধিনিষেধ নবায়ন করেছে। এর অধীনে মঙ্গলবার জিএমটি সময় রাত ৪টা থেকে যে কেউ বৃটেন ভ্রমণ করতে হলে তাকে ভ্রমণ শুরুর ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পিসিআর টেস্টের ফল নেগেটিভ দেখাতে হবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় শনিবার দিনশেষে এ ঘোষণা দিয়েছে। বলা হয়েছে, এই নিয়ম যেকোনো দেশের ১২ বছরের বেশি বয়সী ভ্রমণকারীদের জন্য প্রযোজ্য হবে। এখন যে বিধান চালু আছে তাতে বৃটেন পৌঁছার দুইদিনের মধ্যে ভ্রমণকারীকে পিসিআর টেস্ট করাতে হয়। সরকারের এ ঘোষণায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন ভ্রমণ বিষয়ক সংস্থার প্রধানরা। তারা বলছেন, এটা তাদের ব্যবসার জন্য হাতুড়ির আঘাত। ভ্রমণ শুরুর আগে করোনার পরীক্ষা তাদের জীবন-জীবিকায় আঘাত করবে। ব্যবসায় ধস দেখা দেবে। তবে সরকারি সিদ্ধান্তের পক্ষে অবস্থান নিয়ে উপ-প্রধানমন্ত্রী ডমিনিক রাব স্বীকার করেছেন, এ সিদ্ধান্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য বোঝা হয়ে উঠবে। সরকারের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে বিরোধী লেবার পার্টি।
ওদিকে নিউ ইয়র্কে শনিবার দিনশেষে ঘোষণা করা হয়েছে যে, তিনজনের শরীরে ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে নিউ ইয়র্কে ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে আট। একে কমিউনিটি সংক্রমণ বলে বর্ণনা করেছেন রাজ্যের স্বাস্থ্য বিষয়ক কমিশনার ম্যারি বেসেট। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত রাজ্যের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর আগে শনিবার শনাক্ত হয়েছে ম্যাচাচুসেটস, কানেকটিকাট এবং ওয়াশিংটনে। তারও আগে সংক্রমিতের তথ্য পাওয়া গেছে নিউ জার্সি, জর্জিয়া, পেনসিলভ্যানিয়া ও মেরিল্যান্ডে।
ওদিকে সরকারি একটি হাসপাতালকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য বিশেষায়িত করা হয়েছিল জর্ডানে। কিন্তু ওই হাসপাতালে ১০ জন রোগীর মৃত্যুতে এর পরিচালক আবদেল রাজাক আল কাশম্যান ও তার চার সহযোগীকে অভিযুক্ত করা হয়। পরিচালককে রোববার তিন বছরের জেল দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে তিনি এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন ১০ দিনের মধ্যে।
ওদিকে দক্ষিণ কোরিয়ায় ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন আরও তিনজন। নেদারল্যান্ডসের সাবেক রানী বেট্রিক্সের (৮৩) করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। রাজকীয় এক বিবৃতিকে উদ্ধৃত করে এ তথ্য দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। প্রিন্সেস বেট্রিক্সের হালকা ঠাণ্ডাজনিত লক্ষণ দেখা দেয়। বর্তমানে তিনি বাসায়ই আইসোলেশনে রয়েছেন।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর