× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

জিম্বাবুয়ে ফেরত দুই নারী ক্রিকেটারের করোনা, ওমিক্রনের শঙ্কা

প্রথম পাতা

স্পোর্টস রিপোর্টার
৭ ডিসেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার

প্রথমবারের মতো ওয়ানডে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে গত বুধবার জিম্বাবুয়ে থেকে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। দেশে ফিরে হোটেলে ৫ দিনের কোয়ারেন্টিনে ছিলেন সালমা-জাহানারারা। সোমবার কোয়ারেন্টিন শেষে নিজ নিজ বাসায় ফেরার কথা ছিল তাদের। বাসায় ফেরার আগে জানা গেল, দলের দুই ক্রিকেটার করোনায় আক্রান্ত। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন গতকাল দেখা করতে চেয়েছিলেন নারী ক্রিকেটারদের সঙ্গে। তখনই বিষয়টি সামনে চলে আসে। তবে তারা করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য নতুন করে নমুনা নেয়া হয়েছে।
করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন থাবা বসায় জিম্বাবুয়েতে নারী বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে।
যে কারণে প্রথমে শ্রীলঙ্কা এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের ম্যাচটি স্থগিত ঘোষণা করা হয়। তবে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার শঙ্কায় আইসিসি পুরো বাছাই পর্বটাই বাতিল ঘোষণা করে। বাছাই পর্ব বাতিল হওয়ার আগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়ে মিশন শুরু করেন সালমা-রোমানারা। পরের ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে আরও এক ধাপ এগিয়ে যায় তারা। কিন্তু বৃষ্টি আইনে থাইল্যান্ডের কাছে হেরে যায় তৃতীয় ম্যাচ। তবু ভালোভাবেই বেঁচে ছিল সুপার সিক্স খেলার আশা। গ্রুপপর্বে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ ছিল স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। কিন্তু সেই ম্যাচ মাঠে গড়ানোর আগেই ওমিক্রনের প্রভাবে বাতিল করে দেওয়া হয় বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব। তবে র‌্যাঙ্কিংয়ে পাঁচ নম্বরে থাকার সুবাদে বাংলাদেশ পেয়ে গেছে বিশ্বকাপের টিকিট। জিম্বাবুয়েতে সফল বাছাই পর্ব শেষে অনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে গত বুধবার সকালে দেশে ফিরেন নারী ক্রিকেটাররা। ফ্লাইট জটিলতায় শুরুতে নামিবিয়া হয়ে তারা পৌঁছায় ওমানে। দফায় দফায় বাতিল হতে থাকে ফ্লাইট। মূলত আফ্রিকা দক্ষিণাঞ্চল থেকে তারা ফিরছিলেন বলেই সমস্যা হচ্ছিল ফ্লাইট পেতে। শেষে আইসিসি মাস্কাট থেকে ঢাকার একটি ফ্লাইট চূড়ান্ত করতে পারে। সেই ভাড়া ফ্লাইটে দেশে ফিরেন তারা। দেশে ফিরে রাজধানীর একটি হোটেলে ৫ দিনের কোয়ারেন্টিনে যায় পুরো টিম। সেখানে দু’দফা কোভিড টেস্ট করানো হয় ক্রিকেটারদের।  জানা গেছে, দ্বিতীয় দফা পরীক্ষায় দু’জন খেলোয়াড়ের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। যা এতোদিন গোপন রেখেছিল বিসিবি। কোন দুই ক্রিকেটার আক্রান্ত হয়েছেন, সেটা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। দুই ক্রিকেটারকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। বাকি ক্রিকেটারদের হোটেলেই নিরাপদে রাখা হয়েছে। করোনা শনাক্ত হওয়া ২ নারী ক্রিকেটার শারীরিকভাবে ভাল আছেন বলে জানা গেছে।
তাদের শরীরে করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি আছে কিনা, তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ফল পজিটিভ আসায় আবারও নমুনা নেওয়া হয়েছে দুই ক্রিকেটারসহ সবার। ওমিক্রনের আশঙ্কা থাকায় বিষয়টি আর বিসিবি’র হাতে নেই। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর পুরো বিষয়টির দেখভাল করবে। এ নিয়ে নারী দলের এক কর্মকর্তা বলেন, ্তুদুজন ক্রিকেটার করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর বিষয়টি বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে চলে গেছে, তারা এটা দেখভাল করবে। যাবতীয় সিদ্ধান্ত তারাই নেবে। ওমিক্রন কিনা, এটা নিশ্চিত হতে একটি বিশেষ টেস্ট করাতে হয়, সেটাও করানো হচ্ছে।্থ এদিকে গতকাল দুপুরে ইতিহাসগড়া নারী দলের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় ও মধ্যাহ্নভোজের কথা ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের। যথাসময়ে সেখানে উপস্থিতও হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তিনি দেখা না করে শুধু সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেই চলে যান। ধারণা করা হচ্ছে, দু’জন খেলোয়াড় করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কারণেই এ সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে বিসিবি সভাপতিকে। ওদিকে করোনা শনাক্ত হওয়ায় নারী ক্রিকেটারদের কোয়ারেন্টিনের মেয়াদ আরো বাড়ানো হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর