× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ১৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ঢাকা টেস্ট /ইনিংস ব্যবধানে হারলো বাংলাদেশ

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার

শেষতক পাকিস্তানের কাছে ইনিংস ব্যবধানেই হারলো বাংলাদেশ। পাকিস্তানের ৩০০ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে ৮৭ রানে গুটিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংসে সবকটি উইকেট হারিয়েছে সংগ্রহ করেছে ২০৫ রান। তাতে এক ইনিংস ও ৮ রানের বড় জয়ে ২-০তে সিরিজ নিশ্চিত করলো পাকিস্তান। পাকিস্তানের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ উইকেট শিকার অফস্পিনার সাজিদ খানের। প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেট নেন সাজিদ।



মেহেদীকে ফেরালেন বাবর

সাকিব আল হাসানের সঙ্গে ফিফটি রানের জুটি গড়েই আউট হয়ে গেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তার উইকেট নিয়েছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। বাবরের বলে সুইপ করতে গিয়ে এলবির ফাঁদে পড়েন মেহেদী (১৪)। পরের ওভারেই সাজিদ খানের বলে বোল্ড হন সাকিব আল হাসান। ১২৯ বলে ৬৩ রান করেন সাকিব।

২০০ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে হারের দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ।

সাকিবের ফিফটি

বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে সাকিবের ব্যাট থেকেই এসেছিল সর্বোচ্চ ৩৩ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে দলের একমাত্র অর্ধশতকটা এল তারই ব্যাট থেকে। ৬২তম ওভারের শেষ বলে সিঙ্গেল নিয়ে অর্ধশতক তুলে নেন সাকিব।

মুশফিকের বোকামি

টপ অর্ডারদের ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাজে কিছুরই আভাস পাওয়া যাচ্ছিলো। মাত্র ২৫ রানে ৪ উইকেট হারায় টাইগাররা। খাদের কিনারায় থাকা দলের হাল ধরেন মুশফিকুর রহীম ও লিটন দাস। দুই ব্যাটার মিলে গড়েন ৭৩ রানের পার্টনারশিপ। এরপর লিটন ৪৫ রানে আউট হলে ভাঙে জুটিটি।
লিটনের বিদায়ের পর সাকিবকে সঙ্গে নিয়ে ভালোই প্রতিরোধ গড়ে তোলেন মুশফিক। গড়েন ৪৯ রানের জুটি। তবে মিস্টার ডিপেন্ডেবলের নির্বুদ্ধিতায় ফের বিপদে পড়লো বাংলাদেশ। দ্বিতীয় সেশনের শেষ বলে অহেতুক রান নিতে গিয়ে উইকেট হারালেন। ফেরার আগে মুশফিকের সংগ্রহ ৪৮ রান। ১৩৬ বলের ইনিংসে ৩টি চার হাঁকান তিনি।
দ্বিতীয় সেশনের ব্যাটিং শেষে ৫২.১ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৪৭ রান। ইনিংস পরাজয় এড়াতে এখনও ৬৬ রান প্রয়োজন টাইগারদের।

একশো পার বাংলাদেশের
লজ্জার রানের রেকর্ডে প্রথম ইনিংস শেষ করেছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বোলারদের তোপে মাত্র ৮৭ রান জড়ো করতে অলআউট হয় টাইগার বাহিনী। ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসেও তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ার আভাস দেয় বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যাটাররা। মাত্র ২৫ রানে ৪ উইকেটে হারিয়ে ধুঁকতে থাকা দলের হাল ধরেন মুশফিকুর রহীম ও লিটন কুমার দাস। দুই ব্যাটার মিলে গড়েন ৭৩ রানের পার্টনারশিপ। দলীয় ৯৮ রানে লিটন আউট হলে ভাঙে জুটিটি। ফেরার আগে টাইগার উইকেটরক্ষক ব্যাটার সংগ্রহ করেন ৮১ বলে ৪৫ রান।
৫ ওভার শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১০১। ৮২ বলে ২৪ রানে মুশফিক অপরাজিত রয়েছেন, লিটনের বিদায়ের পর মাঠে নেমেছেন সাকিব আল হাসান।

প্রথম সেশনে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৭২/৪

ফলোঅনে পড়ে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। ২৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে টাইগাররা দিশেহারা। দলের বিপদে মাঠে থিতু হয়ে ইনিংস এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছেন মুশফিকুর রহীম ও লিটন দাস। প্রথম সেশনের খেলা শেষে দুই ব্যাটার মিলে গড়েন ৪৭ রানের পার্টনারশিপ।
২৩ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ৭২ রানে মধ্যাহ্নভোজের বিরতিতে গেছে বাংলাদেশ। মুশফিক ৫২ বলে ১৬ রান এবং লিটন ৪৬ বলে ২৭ রান নিয়ে অপরাজিত রয়েছেন।
এখনও ১৪১ রানে পিছিয়ে রয়েছে টাইগাররা।

ব্যাটিং ধস বাংলাদেশের
ফলোঅনে পড়ে ব্যাটিংয়ে নেমে পাকিস্তানি বোলারদের সামনে রীতিমত কাঁপছে টাইগার ব্যাটাররা। প্রথম ইনিংসের মতো ফের ব্যর্থ বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যাটিং। মাত্র ২৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে স্বাগতিকরা।
চতুর্থ উইকেট হিসেবে সাজঘরে ফিরেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। শাহীন শাহ আফ্রিদির বলে আউট হওয়ার আগে এই টাইগার ব্যাটারের সংগ্রহ ১১ বলে ৬ রান। ১০.৪ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৭ রান।

আবারও ব্যর্থ মুমিনুল
বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেটের অন্যতম ভরসার নাম মুমিনুল হক সৌরভ। তবে ঢাকা টেস্টে নিজের নামের সঙ্গে সদাচারণ করতে ব্যর্থ। পাকিস্তানের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ১ রানে আউট হওয়ার পর টাইগার অধিনায়কের এবারের সংগ্রহ ৭ রান। সবমিলিয়ে টাইগার ব্যাটারদের ব্যর্থতা প্রথম ইনিংসের পুনরাবৃত্তির আভাস দিচ্ছে।
দলীয় ১৯ রানে তিন উইকেট নেই বাংলাদেশের। ৬.৫ ওভার শেষে ২৫ রান সংগ্রহ করেছে টাইগাররা।

১২ রানে ২ উইকেট নেই বাংলাদেশের 
লজ্জার রেকর্ড গড়ে ফলোঅনে পড়েছে বাংলাদেশ। খাদের কিনারায় থাকা টাইগার বাহিনীর হাল ধরতে এবারও ব্যর্থ দুই ওপেনার। অভিষিক্ত মাহমুদুল জয়ের আউট হওয়ার পর ফিরলেন আরেক ওপেনার সাদমান ইসলাম।
দলীয় ১২ রানে দ্বিতীয় উইকেট হিসেবে সাজঘরে ফিরেন সাদমান। শাহীন শাহ আফ্রিদির বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ার আগে ১৫ বলে মাত্র ২ রান সংগ্রহ করেন তিনি।

দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ, শুরুতেই বোল্ড মাহমুদুল জয়
ম্যাচ চালু হওয়ার চেয়ে বৃষ্টিই ঢের ভালো ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য। ৩০০ রানে পাকিস্তানের ইনিংস ঘোষণার পর নিজেদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ৮৭ রানে অলআউট হয় টাইগাররা। ফলোঅনে পড়ে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিং করতে নেমেছে বাংলাদেশ। দুই ওপেনার সাদমান ইসলাম ও মাহমুদুল হাসান জয় ওপেনিং জুটিতে করেছেন মাত্র ১২ রান। অভিষিক্ত জয় ৬ বলে ৬ রানে আউট হয়েছেন।
৩.৪ ওভার শেষে ১ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১২ রান।
পাকিস্তানের প্রথম ইনিংসে করা ৩০০ রানের চেয়ে ২১৩ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেছে স্বাগতিকরা। পরাজয় এড়াতে হয় পুরো ৯০ ওভার খেলতে হবে বাংলাদেশকে অথবা ২১৩ রান পেরিয়ে লক্ষ্য ছুড়ে দিতে হবে পাকিস্তানকে।
চতুর্থদিনশেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৭ উইকেটে ৭৬ রান। সঙ্গে আজ যোগ হয়েছে আর মাত্র ১১ রান। সবমিলিয়ে দেশের মাটিতে সর্বনি¤œ ৮৭ রানে অলআউট হওয়ার লজ্জায় ডুবেছে বাংলাদেশ। এর আগে ২০০২ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ঠিক ৮৭ রানেই অলআউট হয়েছিল বাংলাদেশ।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
rifat
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার, ৫:০৫

টাইগার ডাকা বন্ধ করেন এদের খেলে বিড়ালের মত আবার টাইগার! নরমালি বাংলাদেশ বলেন কুহারা আজাইরা টাইগার

অন্যান্য খবর