× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ১৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

মেসি-এমবাপ্পের ঝলকে পিএসজির বড় জয়

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
৮ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার

আগের দুই ম্যাচে নিষ্প্রভ ছিল প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। ফরাসি লিগ ওয়ানে নিসের বিপক্ষে গোলই করতে পারেনি লা প্যারিসিয়ানরা। দ্বিতীয় ম্যাচে লঁসের বিপক্ষে শেষ মুহূর্তের গোলে হার এড়ায় জর্জিনিও ভাইনালদাম। এবার অবশ্য কোনোরকম বেগ পেতে হয়নি পিএসজিকে। চ্যাম্পিয়নস লীগের ম্যাচে কিলিয়ান এমবাপ্পে ও লিওনেল মেসির নৈপুণ্যে দারুণভাবে ফিরেছে মাউরিসিও পচেত্তিনোর দল, পেয়েছে বড় জয়। মঙ্গলবার রাতে পার্কে দেস প্রিন্সেসে ক্লাব ব্রাগকে ৪-১ গোলে হারিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করে স্বাগতিকরা।

শুরুটা করলেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। ১০ মিনিটের মধ্যেই ফরাসি তারকা পিএসজিকে ২-০ গোলের লিড এনে দেন। এরপর জোড়া গোল করেন লিওনেল মেসি।
মাঝে ব্যবধান কমানো একমাত্র গোলটি করেন ক্লাব ব্রাগের ম্যাটস রিটসের পা থেকে।

শক্তি-সামর্থ্যে পিএসজির চেয়ে বেশ পিছিয়ে থাকলেও সমানতালে প্রতিদ্বন্দ্বিতার প্রচেষ্টা চালায় ক্লাব ব্রাগ। বল দখলে পিছিয়ে থাকলেও আক্রমণে ধার দেখিয়েছে সফরকারী দল। ৬১ শতাংশ বল দখলে রেখে প্রতিপক্ষের গোলবারের উদ্দেশ্যে মোট ১৭টি শট নেয় পিএসজি। যার লক্ষ্যে ছিল ৯টি। অপরদিকে মাত্র ৩৯ শতাংশ বল দখলে রেখে ১৫টি শটের ৬টি লক্ষ্যে রাখে ক্লাব ব্রাগ।

মাত্র ৭০ সেকেন্ডেই এগিয়ে যায় পিএসজি। বাম দিক থেকে নুনো মেন্দেসের শট পাঞ্চ করে ক্লিয়ার করতে পারেননি ব্রাগ গোলরক্ষক সিমোন মিনোলে। বল চলে যায় এমবাপ্পের পায়ে, ডান পায়ের শটে দূরের পোস্টে লক্ষ্যভেদ করেন ফরাসি তারকা স্ট্রাইকার। ইউসিএলে এটি এমবাপ্পের ৩০তম গোল। প্রতিযোগিতাটির ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সী (২২ বছর ৩৫২ দিন) খেলোয়াড় হিসেবে এই মাইলফলক স্পর্শ করলেন তিনি। আগের রেকর্ডটা ছিল মেসির, ২৩ বছর ১৩১ দিন বয়সে ৩০ গোল করেছিলেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার।
৬ মিনিটের ব্যবধানে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোলের দেখা পান এমবাপ্পে। অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার ক্রসে ডি-বক্সে বল পেয়ে দারুণ দক্ষতায় লক্ষ্যভেদ করেন তিনি।

২৪তম মিনিটে জিয়ানলুইজি দোন্নারুম্মার নৈপুণ্যে বেঁচে যায় পিএসজি। সিসে সান্দ্রার শট পা দিয়ে ফিরিয়ে দেন পিএসজির ইতালিয়ান গোলরক্ষক।
৩৮তম মিনিটে স্কোরলাইন ৩-০ করেন লিওনেল মেসি। এমবাপ্পের পাস ধরে একটু এগিয়ে বক্সের বাইরে থেকে বাঁ পায়ের শটে বল জালে জড়ান সাতবারের ব্যালন ডি অর জয়ী। চ্যাম্পিয়নস লীগে রেকর্ড ৩৮টি ভিন্ন দলের বিপক্ষে গোল করার কীর্তি গড়লেন মেসি। সমান প্রতিপক্ষের জাল ভেদ করার কীর্তি রয়েছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোরও।
৬৮তম মিনিটে ব্যবধান কমায় ক্লাব ব্রাগ। সতীর্থের পাস ধরে গোলটি করেন বেলজিয়ান মিডফিল্ডার ম্যাটস রিটস।
৭৬তম মিনিটে ডি-বক্সে ফাউলের শিকার হন মেসি। সফল স্পটকিক থেকে স্কোরলাইন ৪-১ করেন সাবেক বার্সেলোনা অধিনায়ক। চলতি আসরে পাঁচ ম্যাচে মেসির গোল সংখ্যা ৫টি। চ্যাম্পিয়নস লীগে মোট গোলসংখ্যা ১২৫।

‘এ’ গ্রুপে ৬ ম্যাচে ৪ জয় ও ২ হারে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। এক পয়েন্ট কম নিয়ে দুই পিএসজি। ৭ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আরবি লাইপজিগ। আর ক্লাব ব্রাগের সংগ্রহ ৪ পয়েন্ট।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর