× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার , ১২ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

একটি কালভার্ট মেরামতের অভাবে ৪ গ্রামবাসীর দুর্ভোগ

বাংলারজমিন

লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি
১৫ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার

ভোলার লালমোহনে একটি কালভার্ট মেরামত না করায় ৪ গ্রামের অন্তত ৩০ হাজার মানুষ দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন এক বছরেরও অধিক সময় ধরে। উপজেলার পশ্চিম চরউমেদ ইউনিয়নের সৈনিক বাজার থেকে দেওয়ানকান্দি সড়কের উত্তর ইলিশাকান্দি গ্রামের মাথার এ কালভার্টটি মেরামত বা নতুন করে নির্মাণ না করায় বন্ধ হয়ে গেছে যানবাহন চলাচল। তাই বাধ্য হয়ে হেঁটে চলাচল করতে হচ্ছে পথচারী ও এলাকাবাসীকে। তবে এতে করে অধিক সমস্যায় পড়েছে পণ্যবাহী ছোট ছোট যানবাহন। সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, সৈনিক বাজার থেকে দেওয়ানকান্দি সড়কটি দিয়ে রায়পুরাকান্দি, গণেশপুরাকান্দি, দেওয়ানকান্দি ও উত্তর ইলিশাকান্দির মানুষের চলাচল। এসব মানুষের প্রয়োজনে এ সড়কটি দিয়ে চলাচল করে বিভিন্ন ধরনের যানবাহন। তবে সড়কের মাঝের ছোট্ট একটি কালভার্ট এক বছর ধরে ভাঙা থাকায় বিঘ্ন ঘটছে যানবাহন চলাচলে। উত্তর ইলিশাকান্দির  বাসিন্দা মো. সাগর, দেওয়ানকান্দির বাসিন্দা রিপন ও ইলিশাকান্দির বাসিন্দা শরিফুল ইসলাম জানান, কালভার্টটি ভেঙে থাকায় তাদের অনেক পথ ঘুরে যেতে হয় গন্তব্যে।
এতে করে এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করা মানুষের যেন দুর্ভোগের সীমা নেই।
সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে তাদের দাবি দ্রুত ৪ গ্রামবাসীর দুর্ভোগ লাঘবে কালভার্টটি মেরামত বা নতুন করে নির্মাণের জন্য  উদ্যোগ গ্রহণ করার। উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী বিল্লাল হোসেন বলেন, এডিপি প্রকল্পের মাধ্যমে ওই স্থানে শিগগিরই নতুন করে একটি কালভার্ট নির্মাণ করা হবে। এটি নির্মাণ করা হলে ওইসব এলাকার মানুষের দুর্ভোগ লাঘব হবে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর