× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২০ মে ২০২২, শুক্রবার , ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৮ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

বরিশালকে শিরোপা এনে দিতে চান সাকিব

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
১৬ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে (বিপিএল) শেষ ৭ আসরে চারবার অংশ নেয়া দল হিসেবে প্রতিনিধিত্ব করে বরিশাল বিভাগ। প্রথম ২ আসরে বরিশাল বার্নার্স ও পরের ২ আসরে বরিশাল বুলস নামে দেখা যায়। তবে ২০১৬ সালের পর বিপিএল-এ বরিশালের আর কোনো দল দেখা যায়নি। আগের ৪ আসরে ২ বার প্লে-অফ খেলেই পৌঁছে যায় ফাইনালে, ২ বারই অবশ্য হতাশ হতে হয়ছে এই বিভাগের ক্রিকেট সমর্থকদের। তবে এবার বরিশাল নিজেদের সেই হতাশা ভাগ্য বদলে দিতে মরিয়া ‘ফরচুন বরিশাল’-এর ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকরা। সেই লক্ষ্যে দলে ভিড়িয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে। দলের নেতৃত্বও তার হাতে। আর দলনেতা হয়েই সাকিব বরিশারবাসীর জন্য শিরোপা উপহার দেয়ার ঘোষণাও দিয়েছেন।
তিনি বলেন, ‘আন্তরিকভাবে দুঃখিত। কোভিড বেড়ে যাচ্ছে, এটা সবার জন্যই ঝুঁকিপূর্ণ। এ কারণেই আসলে যাওয়া হয়নি। এটা না হলে অবশ্যই যেতাম। যেতে পারলে ভালো লাগতো। আমি খুব রোমাঞ্চিত হয়ে ছিলাম যে, গেলে সবার সাথে দেখা হতো। আমরা আশা করবো, আপনারা দূর থেকে আমাদের সমর্থন করবেন আর আমরা শিরোপা নিয়ে আপনাদের সঙ্গে দেখা করবো।’
সর্বশেষ ২০২০ সালে বিসিবি আয়োজিত বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে বরিশালের দল আবারও মাঠে ফেরে। কিন্তু বিপিএলে ফিরছে আসন্ন আসর দিয়েই, মালিকানা পেয়েছে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে দল পরিচালনা করা ফরচুন গ্রুপ। দলের নামও থাকছে ফরচুন বরিশালই। দলে সাকিব ছাড়াও ভাগ্য বদলাতে কোচ হিসেবে আছেন খালেদ মাহমুদ সুজন। সাবেক এই অধিনায়ক. বিসিবি পরিচালক ও জাতীয় দলের টিম ডিরেক্টর দেশের অন্যতম সেরা কোচদের একজন। সব শেষ তিনি বিপিএল’র চ্যাম্পিয়ন দলের ঢাকা দায়িত্বে ছিলেন। তবে সব ছাপিয়ে এই দলের অন্যতম তারকার নাম সাকিব। তিনি নিজ হাতে দল সাজিয়েছেন। টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই ফরচুন বরিশালকে শিরোপার দাবিদার হিসেবেই এগিয়ে রাখছেন তিনি। সাকিবের সঙ্গী হিসেবে বিদেশি ক্রিস গেইল, ডোয়াইন ব্রাভো, মুজিবুর রহমান, আলঝারি জোসেফ। দেশিদের মধ্যে আছেন নুরুল হাসান সোহান, মেহেদী হাসান রানা, শফিকুল ইসলাম, ইরফান শুক্কুর, মুনিম শাহরিয়াররা প্রতিভাধর ক্রিকেটার। তাই আত্মবিশ্বাসটাও দারুণ। দল নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি দল নিয়ে খুবই খুশি। আমার কাছে মনে হয়, আমাদের ভারসাম্যপূর্ণ একটি দল আছে। সব দলই আসলে ভালো। আমাদের আসলে মাঠে পারফর্ম করতে হবে।’
ফরচুন বরিশাল চেয়েছিল এবার তাদের জার্সি উন্মোচন সহ আরও কিছু কার্যক্রম বরিশাল শহরেই আয়োজন করতে। তাতে স্থানীয় সমর্থকদের কাছাকাছি যাওয়ার সুযোগ বেশি তৈরি হতো। তবে কোভিড পরিস্থিতি আবারও খারাপের দিকে যাওয়ায় সেটি বাতিল করতে হয়েছে শেষ পর্যন্ত। গতকাল রাজধানীর গুলশানে দলটির ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ ও টিম ম্যানেজমেন্টের চুক্তি সম্পন্ন হয়। সেখানেই দল নিয়ে নিজের প্রত্যাশার কথা ব্যক্ত করেন সাকিব। বরিশালের হয়ে খেলতে রোমাঞ্চিত বলেও জানান টাইগার অলরাউন্ডার। তিনি বলেন, ‘আমি খুবই রোমাঞ্চিত। ফরচুন বরিশালের হয়ে এবার খেলবো। প্রথমবার বরিশালের হয়ে খেলার সুযোগ। চেষ্টা থাকবে আমরা যেন বরিশালবাসীকে এবারের শিরোপাটা দিতে পারি।’ দলটির প্রধান কোচ হিসেবে কাজ করবেন খালেদ মাহমুদ সুজন। এ ছাড়াও মেন্টর হিসেবে থাকছেন সাকিবের আরেশ গুরু নাজমুল আবেদীন ফাহিম। ২১শে জানুয়ারি পর্দা উঠছে এবারের বিপিএল’র, উদ্বোধনী ম্যাচেই ফরচুন বরিশাল মুখোমুখি হবে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর