× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৫ মে ২০২২, বুধবার , ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

আল্লাহ ছাড়া কারও দাসত্ব করার সুযোগ নেই: আল্লামা বাবুনগরী

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে
(৪ মাস আগে) জানুয়ারি ১৬, ২০২২, রবিবার, ৮:৫০ পূর্বাহ্ন

হেফাজতের ইসলামের আমীর ও ফটিকছড়ির বাবুনগর মাদ্রাসার মোহতামিম আল্লামা শাহ মহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী বলেছেন, প্রকৃত ঈমানদার কখনো আল্লাহ ব্যতীত অন্য কাউকে মালিক মনে করতে পারে না। যেহেতু আল্লাহই একমাত্র মালিক সুতরাং দাসত্ব ও ইবাদত পাওয়ার একমাত্র অধিকারী হলেন তিনি। কাজেই আল্লাহ ছাড়া কারো দাসত্ব করার সুযোগ নেই। আর সৃষ্টির কেউ বান্দার কোন ধরনের দাসত্ব ও উপাসনা পাওয়ার যোগ্যতাও রাখে না এবং অধিকারও রাখে না।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে ফটিকছড়ির ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া আজিজুল উলুম বাবুনগর মাদ্রাসার দুই দিন ব্যাপী ৯৯তম বার্ষিক মাহফিলের শেষ অধিবেশনে তিনি এসব কথা বলেন।
আল্লামা বাবুনগরী বলেন, সকল প্রশংসার আসল অধিকারী হলেন একমাত্র আল্লাহ তাআলা। কারণ তিনিই হলেন সারা জাহানের সবকিছুর স্রষ্টা, রিজিকদাতা ও একক পরিচালক। তিনি নিজ দয়ায় এসব কিছু সৃষ্টি করেছেন। কারণ তিনি হলেন অসীম দয়ালু ও অশেষ মেহেরবান। সারা জগতের জন্য তাঁর দয়ার কোন বিকল্প নেই।
তাঁর দয়ার কোন সীমানা ও তুলনা নেই। যেহেতু তিনিই সৃষ্টি করেছেন সেহেতু তিনিই দ্বীন-দুনিয়া ও আখেরাতের একমাত্র মালিক। এর মধ্যে কোন ব্যাপারে তাঁর কোন শরীক বা অংশীদার নেই। পৃথিবীতে মানুষকে যা কিছু দেওয়া হয়েছে সব কিছু আল্লাহর এবং ক্ষণিকের জন্য পরীক্ষার উদ্দেশ্যে বান্দাদের আয়ত্বে দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আকাবের আসলাফের তরীকা, পদ্ধতি ও রাস্তা বাদ দিয়ে অন্য কোন রাস্তা ইখতিয়ার করলে তখন পথভ্রষ্ট হয়ে আল্লাহর আজাব-গজবের অধিকারী হবে। তাই আপ্রাণ চেষ্টা করে ও অত্যাধিক গুরুত্ব দিয়ে আকাবেরের তরীকার উপর অটল থাকতে হবে। পথভ্রষ্টতা থেকে বাঁচার জন্য এর কোন বিকল্প নেই।’

সভাপতির বক্তব্য শেষে আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী দেশ ও সার্বিক কল্যাণ কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন। এতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত হাজার হাজার মুসল্লী অংশগ্রহণ করেন।

এরআগে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ৯ টা থেকে দুইদিন ব্যাপী এই ঐতিহ্যবাহী মাহফিল শুরু হয়। এতে হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব মাওলানা সাজেদুর রহমানসহ দেশের ৩৫ জন শীর্ষস্থানীয় ওয়ায়েজ বক্তব্য রাখেন।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর