× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৫ মে ২০২২, বুধবার , ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

ঝালকাঠিতে ১৫ মণ জাটকা জব্দ

বাংলারজমিন

ঝালকাঠি সংবাদদাতা
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার

বরিশাল-খুলনা মহাসড়কের ঝালকাঠিতে যাত্রীবাহী বাসে অভিযান চালিয়ে ১৫মণ জাটকা ইলিশ জব্দ করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ৬ জনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. বশির গাজী তাদেরকে এ সাজা দেন। ‘তাৎক্ষণিক অভিযানে প্রত্যেককে ৫ হাজার করে মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। জেলা মৎস্য অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসন যৌথভাবে মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২ টার দিকে শহরের কৃষ্ণকাঠি পেট্রোল পাম্প মোড়ে বেশ কয়েকটি বাসে অভিযান চালিয়ে ২টি বাস থেকে জাটকাগুলো জব্দ করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, কুয়াকাটা- বেনাপোল রুটে কুয়াকাটা এক্সপ্রেসের চালক মো. মামুন হোসেন, সুপারভাইজার মো. খোকন ও হেলপার আলতাফ হোসেন। একই রুটের ‘সেভেন স্টার পরিবহনের চালক মো. দিপু, সুপারভাইজার আশরাফুল ইসলাম ও হেলপার মো. রিপন।
অভিযানে উপস্থিত ছিলেন- জেলা মৎস্য কর্মকর্তা রিপন কান্তি ঘোষ। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা রিপন কান্তি ঘোষ বলেন, ‘গত নভেম্বর থেকে জুন পর্যন্ত ৮ মাস জাটকা ধরা, পরিবহন, মজুত ও বেচা- কেনার উপর সরকারি নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।
একটি চক্র এ বিধি-নিষেধ অমান্য করে জাটকা শিকার ও বাজারজাত অব্যাহত রাখছিল।
তিনি আরও বলেন, ‘উদ্ধারকৃত জাটকা পটুয়াখালীর কলাপাড়ার মহিপুর বন্দরের বিভিন্ন আড়ৎ থেকে পিরোজপুর, খুলনা ও যশোরের বাজারে যাচ্ছিল। পথে জাটকাগুলো জব্দ করে রাতেই বিভিন্ন মাদ্রাসার বোডিং এবং এতিমখানায় বিতরণ করা হয়েছে।’
ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. বশির গাজী বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ১৫ মণ জাটকা ইলিশ জব্দ ও পরিবহনের দায়ে ৬ জনকে ৫ হাজার টাকা করে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সরকারের বেঁধে দেয়া ৮ মাস সময় অনুযায়ী আগামী জুন মাস পর্যন্ত নিয়মিত এ ধরনের অভিযান পরিচালিত হবে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর