× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৮ মে ২০২২, বুধবার , ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

প্যানেল মেয়রের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ কয়েক শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে থানা ঘেরাও

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ থেকে
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার

মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও শহর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাহারের দাবিতে কয়েক শতাধিক নেতাকর্মী থানা ঘেরাও করেছেন। গতকাল দুপুর ১২টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত মুন্সীগঞ্জ সদর থানা ঘেরাও করেন পৌর মেয়র হাজী মো. ফয়সাল বিপ্লবসহ কয়েক শতাধিক ক্ষুব্ধ নেতাকর্মী। এ খবর শুনে সদর থানায় ছুটে আসেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মিনহাজ। এ সময় নেতাকর্মীরা থানায় প্রবেশ করে বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে প্যানেল মেয়র সাজ্জাদ হোসেন সাগরের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাহার দাবি করেন। ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা বলেন, পুলিশ স্থানীয় সংসদ সদস্যের কথা শুনে প্যানেল মেয়রের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ নিয়েছে। এটা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক কাজ। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাই। তবে থানা ঘেরাওয়ের বিষয়ে ভিন্ন কথা বলেছেন পৌর মেয়র হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব।
তিনি বলেন, আমি নতুন বছরের শুভেচ্ছাবিনিময় করতে গিয়েছি।
থানা ঘেরাওয়ের বিষয় অস্বীকার করে সদর থানার ওসি মো. আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, পৌর মেয়র এসেছিলেন প্যানেল মেয়রের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়টি জানার জন্য। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমুল হাসান সোহেল, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল মৃধা, সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সুরুজ মিয়া, কাউন্সিলর সোহেল রানা রানু, কাউন্সিলর আব্দুল সাত্তার মুন্সী প্রমুখ। উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে অভিযোগের বাদী অহিদুজ্জামান বাবুল তার বাড়ি পাঁচঘড়িয়াকান্দি থেকে শহরের উদ্দেশে রওনা দিয়ে সাজ্জাদের বাড়ির সামনে আসে। এ সময় প্যানেল মেয়র সাজ্জাদ হোসেন সাগরসহ কয়েকজন বাবুলের গতিরোধ করে তাকে মারধর করে বলে অভিযোগ করা হয়। পরে পুলিশ সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর