× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৫ মে ২০২২, বুধবার , ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

মোংলা-ঘষিয়াখালী নৌ চ্যানেল এখন থেকে ‘বঙ্গবন্ধু ক্যানেল’

বাংলারজমিন

বাগেরহাট প্রতিনিধি
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার

আন্তর্জাতিক নৌ-প্রটোকলভুক্ত রুট বাগেরহাটের মোংলা ঘষিয়াখালী চ্যানেল এখন থেকে ‘বঙ্গবন্ধু মোংলা-ঘষিয়াখালী (বিএমজি) ক্যানেল’ নাম হিসেবে ব্যবহৃত হবে। আগের নাম ‘মোংলা-ঘষিয়াখালী নৌ চ্যানেল’ পরিবর্তন হয়ে এখন ওই নাম রেখেছে বিআউডাব্লুউটিএ (বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ)। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে তার স্মৃতি বিজড়িত মোংলা-ঘষিয়াখালী চ্যানেলকে ‘বঙ্গবন্ধু মোংলা-ঘষিয়াখালী (বিএমজি) ক্যানেল’ নামে রূপান্তরিত করা হয়েছে। বিআউডাব্লিউটিএ’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী (ড্রেজিং) মো. আনিচ্ছুজামান রকি গত মঙ্গলবার (১৮ই জানুয়ারি) রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ আমিনুর রহমান স্বাক্ষরিত এক পত্রে মন্ত্রণালয়ের এ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয়া হয়েছে। গত ৯ই জানুয়ারি মন্ত্রণালয় নাম পরিবর্তনের এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকাকালীন দেশের নদীপথের গুরুত্ব বিবেচনায় মোংলা-ঘষিয়াখালী চ্যানেলটি খনন করেছিলেন। নাব্য সংকটের কারণে চ্যানেলটি ২০১০ সাল হতে ২০১৫ সাল পর্যন্ত বন্ধ থাকে। পরে মোংলা বন্দরকে সচল রাখার স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে চ্যানেলটির নাব্য রক্ষায় ২০১৫ সালের ৩রা অক্টোবর ক্যাপিটাল ড্রেজিং দিয়ে খনন শুরু হয়।
পরে ২০১৬ সালের ২৭শে অক্টোবর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নৌযান চলাচলে চ্যানেলটি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।


অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর