× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৩ মে ২০২২, সোমবার , ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২১ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

‘নাম দিয়ে ক্রিকেট হয় না’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার

রাত ফুরালেই মাঠে গড়াচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ক্রিকেট। কাল উদ্বোধনী ম্যাচে দুপুর দেড়টায় মুখোমুখি হবে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ও ফরচুন বরিশাল। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দ্বিতীয় ম্যাচে লড়াই খুলনা টাইগার্স ও ঢাকা প্লাটুনের। গতকাল মিরপুর মাঠে অনুশীলন করে দলগুলো। এর ফাঁকে আসর নিয়ে নিজেদের ভাবনা জানান ক্রিকেটাররা।
এবারের বিপিএল শক্তিশালী দল গড়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস। এখানে দেশি-বিদেশি তারকার হাট। তবে অধিনায়ক ইমরুল কায়েস মনে করিয়ে দিলেন যে আসল কাজটা মাঠেই করতে হয়।
ইমরুল বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে প্রতিটা দলই ভালো। কেউ বলতে পারবে না যে আমরা কম। এখন জিনিসটা হচ্ছে মাঠে ক্রিকেট ভালো খেলতে হবে। আসলে নাম দিয়ে ক্রিকেট হয় না। যদিও আমাদের দলে অনেক বড় বড় নাম আছে। কিন্তু আমাদের সেটা মাঠে খেলে প্রমাণ করতে হবে। তখন বোঝা যাবে আমরা কত ভালো দল।
কুমিল্লা দলে খেলবেন সর্বশেষ আইপিএলে ব্যাট হাতে ধারাবাহিক নৈপুণ্য দেখানো প্রোটিয়া তারকা ফাফ ডু প্লেসি। ইমরুল বলেন,
‘সে (ডু প্লেসি) অনেক বড় তারকা। বিশেষত টি-টোয়েন্টিতে, সে তার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছে যে আইপিএলে বা অন্য টুর্নামেন্টগুলোতে কীভাবে ব্যাট করে। আমি তাকে বললাম আমাদের দেশের উইকেট কন্ডিশন কেমন, উইকেটগুলো কেমন থাকে। আমাদের টিমের প্ল্যান কী হওয়া উচিত। যেহেতু ওর সঙ্গে লিটন ব্যাট করবে, হয়তো প্রথম দুই ম্যাচ করবে না...তো এসব বিষয়ই শেয়ার করেছি। যেহেতু অনেক অভিজ্ঞ, মাঠে ওর সাহায্যটা দরকার।’
সাধারণত ওপেনিংয়ে ব্যাট করে থাকেন ইমরুল কায়েস। তবে কুমিল্লা দলে তিনি কোন পজিশনে খেলবেন তা নিশ্চিত নয়। ইমরুল বলেন, ‘লিটনের বিষয়টা এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু বলে নাই। টিম মিটিং আছে, ওখানে ডিসিশন নেয়া হবে সে কয়টা খেলবে বা খেলবে না। তারপর সিদ্ধান্ত হবে। এখনও ডিসিশন নেওয়া হয় নাই আমি কোথায় খেলবো।’
অধিনায়কত্ব প্রসঙ্গে ইমরুল বলেন, আমাকে অফিশিয়ালি জানানো হয়েছে আমি অধিনায়ক। বিপিএলের মতো টুর্নামেন্টে শুরুটা গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যত বড় টিম হন না কেন, ভালো শুরু করতে পারলে একটা মোমেন্টাম পেয়ে যায়। তখন ভালো খেলার সম্ভাবনা থাকে। আমার জন্য বাড়তি একটা রোমাঞ্চ থাকবে। সঙ্গে আমি চেষ্টা করব দলের প্রয়োজনে যখন যেভাবে খেলার, সেভাবে খেলবো।
বিপিএল খেলে জাতীয় দলে ফিরতে চান সাব্বির
এবারের আসরে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স দলে খেলবেন বিপিএল-এর উজ্জ্বল তারকা সাব্বির রহমান। বিপিএলে নৈপুণ্য দেখিয়ে জাতীয় দলে ফিরতে চান মারকুটে এই ব্যাটার। আসর সামনে রেখে ব্যক্তিগতভাবে প্রস্তুতিও সেরেছেন। গতকাল সাব্বির রহমান বলেন,
‘আলহামদুলিল্লাহ, ভালো লাগছে। অনেকদিন পর টিম অনুশীলন করছি। কবে অনুশীলনে নামবো এ নিয়ে অনেকদিন ধরেই অপেক্ষা ছিল। আজ আমার প্রথম অনুশীলন। গতকাল ছিল কিন্তু আমি যোগ দিতে পারি নাই। বিপিএলের জন্য গত তিন মাস ধরে রাজশাহীতে অনুশীলন করেছি। ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছি, যেগুলো দরকার শট খেলার বা যে উইক পয়েন্ট নিয়ে কাজ করেছি। তো আশাকরি বিপিএলটা যেন ভালোভাবে কাটাতে এবং নিজের যে লক্ষ্য আছে সেটা যেন পেতে পারি।’
এক সময়ে জাতীয় দলের নিয়মিত মুখ সাব্বির রহমান বলেন, ‘শুধু আমার জন্য না, সবাই যারা জাতীয় দলের বাইরে আছে আমাদের সবার জন্য সবচেয়ে বড় মঞ্চ এই বিপিএল এবং আশাকরি সবাই যেন ভালো খেলে কামব্যাক করতে পারে। আমিও যেন ভালো খেলে কামব্যাক করতে পারি সেই লক্ষ্য থাকবে।’
দলের প্রয়োজনে বোলিংয়ে করতে চান এ লেগস্পিনার। বলেন, অনুশীলন করেছি, বোলিংও করেছি। রাজশাহীতেও বোলিং করেছি। যদি দরকার হয় তবে অবশ্যই বোলিং করবো। দলের যেটা চাহিদা থাকবে, দলের যা দরকার হবে সেটা দেয়ার চেষ্টা করবো।
সুপার স্টার না থাকলেও সিলেট ভালো দল: মোসাদ্দেক
এবারের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে সিলেট সানরাইজার্স দলের নেতৃত্ব দেবেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তার দল নিয়ে আশাবাদী তিনি। মোসাদ্দেক বলেন, ‘আমাদের দলে হয়তো সুপার স্টার নাই। কিন্তু যারা আছে তারা ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফর্মার। সবাই যদি নিজেদের দিনে ভালো খেলতে পারে তাহলে অবশ্যই ভালো একটা ফল আশা করা যায়।
মোসাদ্দেক বলেন, ‘একটা ফরম্যাট থেকে আরেকটা ফরম্যাটে ডেলিভার করাটা একটু কঠিন। আমরা অনুশীলন সেভাবেই করছি। যেহেতু আমরা শেষ টুর্নামেন্ট টা ওয়ানডে ফরম্যাটে সাদা বলে খেলেছি, আমার মনে হয়না খুব বেশি সময় লাগবে মানিয়ে নিতে।’
দেশে দ্রুতই বাড়ছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। আর মোসাদ্দেক বলেন, ‘এটাতো বিসিবির সিদ্ধান্ত আমার কিছু না। তবে আমি একটা জিনিস বলতে পারি জীবনের চেয়ে খেলা কখনো গুরুত্বপূর্ণ না। জীবন থাকলে আপনি অবশ্যই খেলতে পারবেন। এ বিষয়গুলো ম্যানেজমেন্ট খুব ভালোভাবে দেখতেছে আমি মনে করি। বিসিবি খুব ভালভাবে টেক কেয়ার করবে ইন শা আল্লাহ।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর