× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৮ মে ২০২২, বুধবার , ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

ট্রাফিক পুলিশের দিকে টাকা ছুড়ে মারলেন বিদেশি

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক
(৩ মাস আগে) জানুয়ারি ২০, ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১০:৩৫ পূর্বাহ্ন

রাজধানীতে গাড়ি থামিয়ে লাইসেন্স চেক করা নিয়ে বিতণ্ডায় জড়িয়ে এক ট্রাফিক পুলিশের দিকে টাকা ছুড়ে মরলেন ক্ষুব্ধ এক বিদেশি নাগরিক। এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ওই বিদেশি ট্রাফিক পুলিশকে লক্ষ্য করে বারবার বলছেন, ‘ইউ ওয়ান্ট মানি, আই গিব ইউ দিস ...মানি (তুমি টাকা চাচ্ছ, আমি তোমাকে টাকা দিচ্ছি)।’ এই বলে তিনি ওই ট্রাফিক পুলিশের গায়ের দিকে টাকার নোট ছুড়ে মারছেন।

জানা গেছে, রাজধানীর তেজগাঁও ট্রাফিক বিভাগের অধীন রাওয়া ক্লাবের সামনের রাস্তায় গত মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে। পথচারী কেউ একজন ঘটনার ভিডিওটি ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেন। পরে সেটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়ে। ওই বিদেশি হলেন চীনের নাগরিক। তিনি একটি তৈরি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। ওই গাড়িটি তাঁর অফিসের।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তেজগাঁও ট্রাফিক বিভাগের উপকমিশনার সাহেদ আল মাসুদ জানান, ‘রাওয়া ক্লাবের সামনে একটি গাড়ি থামিয়ে নথি পরীক্ষা করছিল পুলিশ।
ওই গাড়িতে বিদেশি ছিলেন। পুলিশ সদস্যরা গাড়ির চালকের সঙ্গেই কথা বলছিলেন। নথি পরীক্ষায় একটু সময় লাগছিল। ওই বিদেশির হয়তো কোনো মিটিং ছিল। দেরি হওয়ার কারণে তিনি বিরক্ত হন। তাঁর মনে হয়েছে, হয়তো চেক করছে টাকার জন্য। আমরা পরীক্ষা করে দেখেছি, তাঁর সঙ্গে খারাপ আচরণ করা হয়েছে কি না, তাঁর কাছে টাকা চাওয়া হয়েছে কি না। এখন পর্যন্ত এ ধরনের তথ্য পাওয়া যায়নি।
তিনি আরও বলেন, ওই বিদেশি নাগরিকের কর্মকাণ্ডে পুলিশসহ দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। এ ঘটনায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। পরে মামলাও হতে পারে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
imu
২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ২:১৪

লাইসেন্স চেক করতে দেরি কেন হয় তা আমাদের জানা আছে। টাকা না দেয়া পর্যন্ত সার্জেন্টের পিছে পিছে ঘুরতে হয়, তারা মুখে ঘুষ চায় না কিন্তু আচরনে বুঝিয়ে দেয়

রকিব
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১০:০৩

পুলিশ যদি কোন অন্যায় করে তবে অবশ্যই শাস্তি হওয়া উচিত কিন্তু যদি চীনের এই নাগরিক যদি কোন অন্যায় অসভন আচরণ করে থাকে তবে অবশ্যই তাকে জবাবদিহিতার আওতায় আনা উচিত।চীনারা কি কোন দুধে ধোয়া জাতি না কি।আর যদি এই ভাবে বিদেশীদের অসভন অন্যায় মেনে নেয়া হয় তবে ভবিষ্যতে আবার এরা এই রকম সাহস পাবে।

Mizan
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৫:৩২

সত্য উন্মোচন হলে মান সন্মান তো একটু ক্ষুন্ন হয়।

Morshed Bhuiyan
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৩:২৩

দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ হয়নি বাংলাদেশের মানুষ ও পুরো পৃথিবী জানে বাংলাদেশের পুলিশ যে কি।

James
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ২:৪৭

Incident to.be investigated by a Judiciary committee

Saidur Rahaman
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৩:০৭

This is not acceptable, this man should be punished heavily. He insult a country’s law and order,

মোঃ আলতাফ হোসেন
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১:৩৬

বাংলাদেশের পুলিশ প্রশাসনের চরিত্র সম্পর্কে বিদেশিরাও জেনে গেছে!! দেশের মানুষ বিভিন্ন ভাবে প্রতিবাদ করলেও ঘোষখোরদের কোন লজ্জা হয়নি। এরা নিজের সাথে সাথে দেশের ভাবমূর্তিও নষ্ট করছে। এবার কি এদের লজ্জা হবে?

ফারুক হোসেন
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১:৫০

দেশের ভাবমূর্তি উজ্জল করার জন্য ঐ ট্রাফিক সদস্যকে পিপিএম আর তাকে জোরালো সমর্থন করবার জন্য তেজগাঁও ট্রাফিক বিভাগের উপকমিশনার সাহেদ আল মাসুদকে বিপিএম পদক দেওয়া হোক।

A H M Nurul Islam
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১২:৩৬

Of course it is not fair to blame Police at large. But my experience for last 30 years on Dhaka street establishes the fact that traffic police stops vehicles & checks papers with an intention to extort illegal money i.e.bribe. All residents of Dhaka are well aware of this phenomena, except the supervising police officers.

Md. Harun al-Rashid
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১:২৩

চেকপোষ্টে একটু দেরী হলে পুলিশকে অসন্মান করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ। যত্রতত্র চেক করাও বিরক্তিকর। তবে পুলিশের সুনাম নিয়ে দেশে প্রচলিত ধারনা থেকে বিদেশীর এমন প্রতিক্রিয়া হয়ে থাকতে পারে।

Kazi
১৯ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার, ১১:৫৫

আইন প্রয়োগ কারিদের হাতে সরকার যে ক্ষমতা দিযেছে তা আইনের প্রয়োগের জন্য বারবার করে না । অপব্যবহার করে জনগণকে হয়রান করে বেআইনি ভাবে অর্থ উপার্জন করে । বিদেশী নাগরিক ও জানে । তাই অর্থ ছুড়ে মেরেছে । এর চেয়ে অপমান জনক কিছুই নাই । আশ্চর্য হই নি ।

Borno bidyan
১৯ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার, ১১:৪০

আমাদের দেশের ট্রাফিক পুলিশ কখনো টাকা খাওয়ার জন্য বিদেশীদের গাড়ী আটকায় না! তারা বিদেশী দেখলে দ্রুত ছেড়ে দেয় কিংবা বিদেশীদের গাড়ী আটকে উর্ধতন অফিসারদের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য ভাব দেখায়! আসলে আইন মানা ও না মানার ব্যাপারে আমাদের সরকার গুলি কোন দায় নেয় না! কারণ, আইন যারা মানে তারা সবচেয়ে বেশী হয়রানীর শিকার!

Amir
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১১:৪৯

‘ইউ ওয়ান্ট মানি, আই গিব ইউ দিস ...মানি------বিদেশীরা কিভাবে জানল আমাদের দেশের পুলিশরা টাকা চায় ,আশ্চর্য্য!‘(You want money, I give you this ... Money ------ Wonder how foreigners know our country’s police want money)!

ফরিদ আহম্মেদ
১৯ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার, ৯:৫৫

আমাদের পুলিশের চরিত্র সমন্দে সারা পৃথীবির মানুষ অবগত।আমরা শরিরের ময়লা তেল দিয়ে আর কত ডাকব?

Evan
১৯ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার, ৯:৪৯

আমাদের দেশের কিছু সংখ্যক ট্রাফিক পুলিশ টাকার জন্য এমন কান্ড ঘটাতে পারে এটা অস্বীকার করব না কিন্তু এক জন বিদেশির সাথে আমার দেশের পুলিশ এমন করবে না এটা আমি নিশিচতভাবে বলতে পারি। চাইনিজরা একটু বদ মেজাজী এখানে তদন্তের দরকার আছে । সব কিছু ঢালাওভাবে পুলিশের দোষ দেওয়া যাবে না।

অন্যান্য খবর