× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২০ মে ২০২২, শুক্রবার , ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৮ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

বছরের প্রথম জয় ম্যানইউর

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার

স্কোয়াডে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, ব্রুনো ফার্নান্দেজ, রাফায়েল ভারানদের মতো তারকার মেলা। তবুও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পারফরম্যান্সে নেই ধারাবাহিকতার ছাপ। প্রিমিয়ার লীগে বার্নলির বিপক্ষে ৩-১ গোলের দাপুটে জয় দিয়ে বছর শেষ করা রেড ডেভিলরা নতুন বছরে ছিল টানা দুই ম্যাচ জয়শূন্য। ঘরের মাঠে উলভারহ্যাম্পটনের কাছে পরাস্ত হওয়ার পর অ্যাস্টন ভিলার মাঠে ড্র সঙ্গী হয় রালফ রাংনিকের দলের। অবশেষে জয়ের মুখ দেখলো ইউনাইটেড। বুধবার রাতে ব্রেন্টফোর্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে নতুন বছরে প্রিমিয়ার লীগে প্রথম জয়ের স্বাদ পেলো ম্যানইউ।
ব্রেন্টফোর্ড কমিউনিটি স্টেডিয়ামে প্রথমার্ধে দারুণ কয়েকটি সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয় ব্রেন্টফোর্ড। বিরতির পর অ্যান্থনি ইয়েলাংয়ার গোলে এগিয়ে যায় ম্যানইউ। এরপর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ম্যাসন গ্রিনউড।
বদলি নেমে দলের তৃতীয় গোলটি করেন মার্কাস রাশফোর্ড।
ম্যাচ হারলেও ম্যানইউর সঙ্গে টক্কর দিয়েছে ব্রেন্টফোর্ড। গোটা ম্যাচে ৪৩ শতাংশ বল দখলে রেখে প্রতিপক্ষের গোলবারের উদ্দেশ্যে মোট ১৮টি শট নেয় স্বাগতিকরা। যার মধ্যে লক্ষ্যে ছিল ৮টি। ৫৭ শতাংশ বল দখলে রাখা ম্যানইউ ১৩টি শটের ৫টি লক্ষ্যে রাখে।
দ্বাদশ মিনিটে দারুণ সুযোগ তৈরি করে ব্রেন্টফোর্ড। বায়ান এমবামোর কাছের পোস্টে নেয়া শট পা বাড়িয়ে কর্নারের বিনিময়ে রুখে দেন ম্যানইউ গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়া।
২৫তম মিনিটে সুযোগ হাতছাড়া হয় ম্যানইউর। পর্তুগিজ ডিফেন্ডার দিয়োগো দালোতের নেয়া শট অল্পের জন্য লক্ষ্যে থাকেনি। চোট কাটিয়ে দুই ম্যাচ পর ফেরা রোনালদো প্রথমার্ধের প্রায় পুরোটা সময় ছিলেন অনুজ্জ্বল।
প্রথমার্ধে সাদা-মাটা পারফরম্যান্সে কাটানো ম্যানইউ গোলের দেখা পায় বিরতি থেকে ফিরে। ৫৫তম মিনিটে ফ্রেডের রক্ষণের ওপর দিয়ে বাড়ানো ক্রস পেয়ে গোলটি করেন সুইডিশ ফরোয়ার্ড ইয়েলাংয়া।
সাত মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করে ম্যানইউ। নিজেদের সীমানায় প্রতিপক্ষের থেকে বল কেড়ে স্কট ম্যাকটমিনে উঁচু করে বাড়ান রোনালদোর উদ্দেশ্যে। বল পেয়ে ফার্নান্দেজের উদ্দেশ্যে বাড়ান সিআরসেভেন। ডি-বক্সে ফার্নান্দেজের পাস পেয়ে লক্ষ্যভেদ করেন গ্রিনউড।
৭১তম মিনিটে কিছুটা অসন্তোষ নিয়ে মাঠ ছাড়েন রোনালদো। কোচ রাংনিক পর্তুগিজ সুপারস্টারকে তুলে ডিফেন্ডার হ্যারি ম্যাগুইয়ারকে নামান। একই সময়ে গ্রিনউডকে তুলে র‌্যাশফোর্ডকে নামানো হয়।
মাঠে নেমেই চমক দেখান রাশফোর্ড। ৭৭তম মিনিটে ফার্নান্দেজের পাস ডি-বক্সে পেয়ে জোরালো শটে স্কোরলাইন ৩-০ করেন এই ইংলিশ ফরোয়ার্ড। ৮৫তম মিনিটে ব্রেন্টফোর্ডের আইভ্যান টনি একটি গোল পরিশোধ করেন।
২১ ্যাচে ১০ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের সপ্তম স্থানে ম্যানইউ। ১৪ নম্বরে থাকা ব্রেন্টফোর্ডের পয়েন্ট ২৩।
২২ ম্যাচে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ম্যানচেস্টার সিটি। এক ম্যাচ কম খেলে লিভারপুল ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর