× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২০ মে ২০২২, শুক্রবার , ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৮ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

ভারতের বাঁচামরার লড়াই আজ

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২১ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার

বোল্যান্ড পার্কে ভারতকে ৩১ রানে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। একই ভেন্যুতে আজ তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মুখোমুখি হচ্ছে দু’দল। সিরিজ বাঁচাতে এই ম্যাচে জিততেই হবে সফরকারীদের। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বেলা আড়াইটায়।
বুধবার পার্ল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেট হারিয়ে ২৯৬ রান জড়ো করে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ২৬৫  রান সংগ্রহ করতে সমর্থ্য হয় ভারত। ম্যাচের পর ভারতীয় অধিনায়ক কেএল রাহুল বলেন, ‘দলের বোলাররা ভালো বোলিং করতে পারেনি। ২০-৩০ বেশি খরচ করেছেন তারা। ভুল শুধরে দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াতে চায় ভারত দল।’
টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা অবশ্য ভালো ছিল না দক্ষিণ আফ্রিকার।
দলীয় ১৯ রানে সাজঘরে ফেরেন ওপেনার ইয়ানেমান মালান। জসপ্রিত বুমরাহর বলে আউট হওয়ার আগে এই প্রোটিয়া ওপেনার ১০ বলে করেন ৬ রান। ৭০ রানের আগে আরো দুই উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ৪১ বলে ২৭ রান করে রবীচন্দ্রন অশ্বিনের বলে বোল্ড হন কুইন্টন ডি কক। এইডেন মার্করাম সংগ্রহ ৪ রান। এরপর চতুর্থ উইকেটে অপ্রতিরোধ্য জুটি গড়েন অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা ও রসি ভ্যান ডার ডুসেন। দুই ব্যাটার মিলে গড়েন ২০৪ রানের জুটি। বাভুমা ১৪৩ বলে ১১০ রান করে আউট হলে ভাঙে জুটিটি।
ঝড়ো ব্যাটিংয়ে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ভ্যান ডার ডুসেনও। ৯৬ বলে ১২৯ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। অনবদ্য ইনিংসটি সাজান ৯ চার ও ৪ ছক্কায়। ১০ ওভারে ৪৮ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন জসপ্রীত বুমরাহ। ১ উইকেট পান অশ্বিন। ধীরে সুস্থে শুরু করা ইনিংসে ৪৬ রানে প্রথম উইকেট হারায় ভারত। ব্যক্তিগত ১২ রানে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক কেএল রাহুল। এরপর শিখর ধাওয়ান ও বিরাট কোহলি মিলে ৯২ রানের জুটি গড়েন। ধাওয়ান ৮৪ বলে ৭৯ রানে আউট হলে ভাঙে জুটিটি। ভারতের সাবেক অধিনায়ক কোহলি ৬৩ বলে ৫১ রানে তাবরেইজ শামসির বলে সাজঘরে ফেরেন। হাফ সেঞ্চুরির দেখা পান শার্দুল ঠাকুরও। এছাড়া কোনো ব্যাটারই ছুঁতে পারেননি বিশের কোঠা।
লুঙ্গি এনগিডি, তাবরাইজ শামসি ও অ্যান্ডিল ফেহলাকওয়াইও দুটি করে উইকেট নেন। একটি করে উইকেট শিকার করেন এইডেন মার্করাম ও কেষভ মহারাজ।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর