× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৯ মে ২০২২, রবিবার , ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

শরণখোলায় যুবলীগ নেতার পা ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

বাংলারজমিন

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি
২৪ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার

বাগেরহাটের শরণখোলায় মো. আবু সালেহ খলিফা (৪০) নামে এক যুবলীগ নেতার হাত-পা ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গত শনিবার রাতে উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের বগী বাজারে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ভুক্তভোগী পরিবার ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের জের ধরে উপজেলার বগী গ্রামের মো. আব্দুর রহমান খলিফার ছেলে মাছ ব্যবসায়ী ও বগী গ্রামের ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সালেহকে মারধর করে স্থানীয় ইউপি সদস্য রিয়াদুল পঞ্চায়েতের ভাই মো. আসাদুল পঞ্চায়েত। ওই ঘটনায় শরণখোলা থানায় একটি মামলা দায়ের হলে সেই মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন সময় হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিল আসামি পক্ষ।
ওই ঘটনার জের ধরে শনিবার রাতে আসাদুল পঞ্চায়েত, ফারুক খান ও পলাশের নেতৃত্বে ৭-৮ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল আবু সালেহর মাছের আড়তে হামলা চালিয়ে হাতুড়ি ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে তার বাম হাত ও ডান পা ভেঙে দেয়। তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।
শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. ফয়সাল আহমেদ জানান, তার মাথা, হাত ও পায়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য মো. রিয়াদুল পঞ্চায়েত জানান, কম্পিউটারের হার্ডডিস্ক নিয়ে আসাদুলের সঙ্গে আবু সালেহর ঝগড়ার একপর্যায়ে মারামারির ঘটনা ঘটে।
শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান জানান, এ ঘটনায় আবু সালেহর চাচা দেলোয়ার খলিফা বাদী হয়ে শরণখোলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে বাগেরহাট কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর