× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার , ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

ইউরোপে করোনা মহামারির ইতি ঘটতে পারে- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(৩ মাস আগে) জানুয়ারি ২৪, ২০২২, সোমবার, ১২:২৩ অপরাহ্ন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইউরোপীয় পরিচালক হ্যান্স ক্লুগ বলেছেন, ওমিক্রনের মধ্য দিয়ে ইউরোপে মহামারির ইতি ঘটতে পারে। বার্তা সংস্থা এএফপিকে তিনি বলেছেন, ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট করোনা মহামারিকে নতুন একটি দশায় নিয়ে গেছে। এতে মনে হচ্ছে ইউরোপে এর ইতি ঘটতে যাচ্ছে। এ অঞ্চল এই মহামারির শেষ দিকে এগিয়ে যাচ্ছে- যা একটি সুখবর হতে পারে। তিনি আরো বলেন, মার্চের মধ্যে ইউরোপে শতকরা ৬০ ভাগ মানুষকে সংক্রমিত করতে পারে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট।

তিনি আরো বলেছেন, একবার যখন পুরো ইউরোপে ওমিক্রনের বর্তমান ঢেউ কমে যাবে, তখন কয়েক সপ্তাহ বা মাসের মধ্যে বৈশ্বিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কার্যকর থাকবে। সেটা হবে টিকার কারণে অথবা সংক্রমিত মানুষের মধ্যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সৃষ্টির কারণে। ফলে এ মৌসুমে এর হার কমে যাবে। হ্যান্স ক্লুগের মতে, আমরা আশা করছি, বছর শেষে করোনা ফিরে আসার আগেই একটি ভাল অবস্থানে চলে যাবে।
তবে মহামারি যে আবার আসবেই তেমনটা খুব অত্যাবশ্যক নয়।

ওদিকে এবিসি নিউজের টকশোতে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ মহামারি বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচিও রোববার একই রকম আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেছেন, কোভিড-১৯ যুক্তরাষ্ট্রের কিছু অঞ্চলে বৃদ্ধি পাওয়ার পরিবর্তে কমে আসছে। ব্যাপারটা ভাল দেখাচ্ছে। এ বিষয়ে তার আস্থা আছে। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বেশ কিছু এলাকায় যেভাবে আক্রান্তের সংখ্যা কমে আসছে, তাতে পুরো দেশে একই ধারা শুরু হবে বলে বিশ্বাস করি।

আবার আফ্রিকা অঞ্চলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অফিস থেকে গত সপ্তাহে বলা হয়েছে, ওই অঞ্চলে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমে আসছে। সম্প্রতি সেখানে ওমিক্রন সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে আক্রান্তের সংখ্যা সর্বোচ্চে পৌঁছে। কিন্তু তারপর থেকে প্রথমবারের মতো মৃতের সংখ্যা কমে আসছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
SJ
২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার, ৩:২৪

সেটা হবে টিকার কারণে নয় ।। সংক্রমিত মানুষের মধ্যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সৃষ্টির কারণে ও প্রাকৃতিক নিয়মে।

Badsha Wazed Ali
২৪ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার, ৬:৫১

উন্নত দেশগুলির টিকার ব্যবসা তো হতে হবে! আবার কোন রোগ আপনারা ছড়িয়ে দিন। সেটা পারবেন। যেহেতু ৩র্থ মহাযুদ্ধ হচ্ছে না। একটা যুদ্ধের মধ্যে তো পূজির বিকাশ ঘটানো যায়। এখানে যুদ্ধ মানেই নতুন ছোয়াছে রোগের উদ্ভব এবং বিস্তার ঘটানো। আমরা আল্লাহর কাছে বিচার দিলাম।

Mohammed Abdul Latif
২৪ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার, ২:৪৪

হে মহান রব সারা বিশ্বের নির্যাতিত মুসলিম জণগোষ্ঠীর প্রতি আপনার করুনার খুবই প্রয়োজন । আল্লাহ সাহায্য কর ।

Ali Hussain
২৪ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার, ১:২২

Hope, Allah, save the world.

Kazi
২৩ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার, ১১:৪৯

সুখবর মিথ্যা ও ভাল। মানুষের মনোবল বাড়বে । অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ও স্বাভাবিক জীবন ফিরে পাবে মানুষ। এটাই কাম্য। সবাই ত্রাসের মধ্যে জীবন ধারণ করছে । মহামারী নিপাত যাক । স্বাভাবিক জীবন ফিরে আসুক।

অন্যান্য খবর