× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২২ মে ২০২২, রবিবার , ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

শিক্ষামন্ত্রীকে এবার হেলিকপ্টারে সিলেটে যাওয়ার আহ্বান আনু মুহাম্মদের

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে হেলিকপ্টারে সেখানে যেতে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির প্রতি আহ্বান জানালেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ। গতকাল শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ভিসির পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করেন বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা। কর্মসূচির আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক নেটওয়ার্ক। দুপুর ১২টায় শুরু হয়ে বেলা ৩টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে কর্মসূচিটি পালন করা হয়। কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সরাসরি আলোচনায় বসার বিষয়টি ঝুলিয়ে রেখেছেন। আমরা যে সময়ে রাজধানীর এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যানজটের কারণে যেতে পারবো না, মন্ত্রীর সুযোগ রয়েছে তার চেয়ে কম সময়ে প্রয়োজনে হেলিকপ্টারে করে সিলেটে যাওয়ার। অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, সিলেটে গিয়ে কথা বলা নিয়ে দীর্ঘসূত্রতায় সরকারের আরেকটি উদ্দেশ্য, শিক্ষার্থীরা যেন ক্লান্ত হয়ে পড়েন। আর তারা অধৈর্য হয়ে কোনো কিছু করে বসলে, এটাকে কেন্দ্র করে সরকার তাদের দমন করবে।
কিন্তু সরকার তরুণদের চেনে না। আনু মুহাম্মদ বলেন, শাহজালালের ভিসির পদত্যাগের বিষয়ে অন্যান্য ভিসি পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যদি বিষয়টি সঠিক হয়ে থাকে, তাহলে সেটি আমাদের জন্য ভালো খবর। সরকারের উচিত হবে,  ভিসিরা পদত্যাগ করার পর পর একটি তদন্ত কমিটি করা। তদন্তের মাধ্যমে তারা কী করেছেন, তা জনগণের সামনে তুলে ধরতে হবে। আনু মুহাম্মদ বলেন, আমরা এসেছি শিক্ষক সমাজকে বড় কলঙ্ক থেকে বাঁচাতে। ব্যক্তিস্বার্থ রক্ষায় সিলেটে যে ঘটনা ঘটেছে, তা এখন গোটা শিক্ষক সমাজের সম্মান রক্ষায় চ্যালেঞ্জ হয়ে পড়েছে। এর মূল কারণ, কীভাবে  ভিসি নিয়োগ হচ্ছে, তা আমরা সবাই জানি। তিনি বলেন, যারা সরকারের প্রতি আনুগত্য দেখাতে পারবেন, তাদের যোগ্যতা তত বেশি। সরকারের স্থানীয় প্রতিনিধি হিসেবে ছাত্র সংগঠনের পৃষ্ঠপোষকতা করে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মেরুদণ্ড ভেঙে দেয়া এখন ভিসির কাজ। অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, এসব  ভিসির পড়াশোনা, পরীক্ষা নেয়া, খাতা দেখা, গবেষণা কোনো কিছুতে সময় নেই। কিন্তু সারাদিন বিভিন্ন দপ্তরে দপ্তরে গিয়ে ঘোরাঘুরি করতে করতে যখন মেরুদণ্ড বিলুপ্ত হয়, তারপর তারা ভিসি হচ্ছেন। আশঙ্কার বিষয় হচ্ছে, দেশে ৫০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে এমন দুই শতাধিক ব্যক্তি রয়েছেন। আনু মুহাম্মদ বলেন, সিলেটে সাধারণ ছাত্রীদের যৌক্তিক আন্দোলন ছিল, তারা হলে ভালো খাবার পাচ্ছেন না। বিষয়টি উপস্থাপন করা হলে প্রশাসনের খুশি হওয়া উচিত ছিল যে শিক্ষার্থীরা এসব বিষয় তুলে ধরেছেন। কিন্তু প্রশাসন তাদের পুলিশ দ্বারা নির্যাতন করেছে। একটা বিশ্ববিদ্যালয়  ভিসিকে ঘেরাও সাধারণ বিষয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ অভিভাবক তিনি। তার কাছেই তো দাবি জানানো হবে। কিন্তু তাদের নির্যাতন করা মানায় না।
 এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হকের নেতৃত্বে তার সংগঠন গণঅধিকার পরিষদের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে বেলা দুইটার দিকে বাংলাদেশ ছাত্র জোট, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সমন্বয়ে প্রগতিশীল ছাত্র জোটের ব্যানারে একটি বিক্ষোভ মিছিল এসে কর্মসূচিতে সংহতি জানায়। সংগঠনগুলোর পক্ষে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন একটি লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Md. Harun al-Rashid
২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার, ১:৫৭

বরং আপদ কালিন ছুটি মন্জুর করে বিশেষ বিমান পাঠিয়ে মাননীয় ভিসি মহোদয়কে ঢাকায় স্থানান্তর করা যেতে পারে।

অন্যান্য খবর