× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার , ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

আলাপন /জয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আত্মবিশ্বাসী -রুবেল

বিনোদন

মাজহারুল তামিম
২৬ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার

নায়ক রুবেল। বাংলা চলচ্চিত্রের ‘অ্যাকশন কিং’। একটা সময় ঢাকাই সিনেমা মার্শাল আর্টে মাতিয়ে রেখেছিলেন তিনি। এখনো তিনি অভিনয় করছেন। তার চারটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। 'ধ্বংস মানব', 'অপরাধ জগত', 'একাত্তরের এক খন্ড ইতিহাস' ও বীর বাঙালি। চলতি মাসের ২০ তারিখ 'ইনসান' নামের একটি ছবির শুটিং করার কথা ছিল। কিন্তু সেটা করোনার প্রকোপ বাড়ার কারণে স্থগিত হয়েছে।
বর্তমানে শুটিং না থাকলেও এ নায়ক ব্যস্ত রয়েছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনী প্রচারণার কাজে।

মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে সহ-সভাপতি পদে লড়ছেন রুবেল। জয়ের ব্যাপারে কতটা আত্মবিশ্বাসী? রুবেল বলেন, আমি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আত্মবিশ্বাসী। আমাদের পুরো মিশা-জায়েদ প্যানেলের সবাই জিতবে ইনশাআল্লাহ। কারণ আমরা সব সময় শিল্পীদের পাশে ছিলাম। করোনার মধ্যেও মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে শিল্পীদের যেকোনো প্রয়োজনে ছুটে গিয়েছি। সামর্থ্য অনুযায়ী সর্বোচ্চ সহযোগিতা করেছি। তারা এর প্রতিদান ভোটের মাধ্যমেই দিবে। এবার আপনার ব্যক্তিজীবন নিয়ে জানতে চাই। এখন তো আর অভিনয়ে আগের ব্যস্ততা নেই। কী করে সময় কাটে? রুবেল বলেন, সময়ের সাথে সাথে মানুষের অনেক কিছুই পরিবর্তন হয়। এখন জীবনের শেষ পর্যায়ে আছি। আমি মনে করি, একজন মুসলিম হিসেবে ইতোমধ্যে আমার এক পা কবরে চলে গিয়েছে। কারণ আমি ৬০ বছর অতিক্রম করছি। এই মূহুর্তে আমি সবসময় পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ি, কোরআন শরীফ পড়ি, আল্লাহকে ডাকি।

সৎভাবে থাকার চেষ্টা করি। কোনো মানুষের ক্ষতি না করার চেষ্টা করি। ক্যারিয়ারে আপনার কোনো অপ্রাপ্তি আছে? এ নায়কের উত্তর- আমার ফিল্ম ক্যারিয়ারে কোনো কিছুর কমতি নেই। আমি দর্শক, পরিচালক সব জায়গা থেকে ভালোবাসা পেয়েছি। এটাই বিশাল ব্যাপার। সিনেমায় কাজ করার সুবাদে অনেক মানুষের ভালোবাসা পেয়েছেন। বিশেষ ঘটনা আছে কোনো ভক্তদের ঘিরে? রুবেল বলেন, অনেক লোক আমাকে দেখতে চায়, ছবি তুলতে চায়। অনেকে বুকে জড়িয়ে ধরে। আমি কখনই বিরক্ত হইনি।

ভক্তদের চাহিদা মেটানোর জন্য চেষ্টা করি। তাদের আবদার রাখি। তাদের জন্যই তো নায়ক হতে পেরেছি। একটা ঘটনা এই মূহুর্তে মনে পড়ছে। ৯০ দশকে ইতালিতে গিয়েছিলাম। রাস্তা দিয়ে হেটে যাচ্ছিলাম, তখন ওইখানে একজন বাঙালি ভদ্রলোক ছাতি বিক্রি করছিলেন। হঠাৎ আমাকে দেখে সে চিনে ফেলে। এরপর আমাকে জড়িয়ে ধরে কাঁদছিলেন। তারপর কান্না থামিয়ে তিনি একটি কথা বলেছিলেন, রুবেল ভাই অমার খুব শখ ছিল মুত্যুর আগে যেন আপনাকে দেখতে পারি। সেই ইচ্ছা পূরণ হলো।

আমার আর কোনো কিছু পাওয়ার নেই। আমার কাছে মনে হয় একজন শিল্পীর এই ঘটনার মুখোমুখি হওয়া এবং এমন কথা শোনার পর জীবনে এর থেকে বেশি পাওয়ার আর থাকতেই পারে না। ভক্তদের উদ্দেশ্যে রুবেল বলেন, আপনারা সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। করোনা যেভাবে দিনকে দিন বেড়ে যাচ্ছে আমাদের সেদিকে সচেতন থাকা উচিত। অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। অনেক মানুষের ভীড়ে না যাওয়াই ভালো।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর