× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার , ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

পুঠিয়ায় ট্রাক হেলপারকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি, আটক ১

বাংলারজমিন

পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি
২৭ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার

রাজশাহীর পুঠিয়ায় ট্রাকের হেলপারকে অপহরণ করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ চাওয়ার অভিযোগে এক অপহরণকারীকে আটক করেছে পুলিশ। আটক মানোয়ার হোসেন (২৩) বানেশ্বর দিঘলকান্দি উত্তরপাড়া এলাকার জালাল উদ্দিনের ছেলে। অপরদিকে অপহরণের শিকার ইসমাইল হোসেন (২১) নাটোর বাগাতিপাড়া উপজেলার চন্দ্রখৈইর গ্রামের মঞ্জুর রহমানের ছেলে এবং পেশায় ট্রাক হেলপার। এ ঘটনায় বাগাতিপাড়া উপজেলার ইসমাইলের পিতা মজনুর রহমান বাদী হয়ে ২৫শে জানুয়ারি সকালে ৫ জনের নামে পুঠিয়া থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। আসামিরা হলো- পুঠিয়া উপজেলার দিঘলকান্দি উত্তরপাড়া গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে মানোয়ার হোসেন ও একই এলাকার সাদ্দাত আলীর ছেলে সায়েম এবং জিউপাড়া সৈয়দপুর গ্রামের কামাল উদ্দিনের ছেলে আতিকুল ইসলাম আতিকসহ অজ্ঞাত আরও দুজন।
থানার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২৩শে জানুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ভুক্তভোগী ইসমাইল হোসেনকে তার নিজ বাড়ির সামনে থেকে ৩টি মোটরসাইকেলে ৫ জন তাকে অপহরণ করে। এরপর অপহরণে অভিযুক্তরা পরদিন ২৪শে জানুয়ারি বিকালে মুঠোফোনে তার পিতার নিকট দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। আর মুক্তিপণের দাবিকৃত টাকা পুঠিয়ার বানেশ্বর বাজারে নিয়ে আসতে নির্দেশ দেয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর পিতা ইসমাইল হোসেন পুঠিয়া থানায় একটি অভিযোগ দেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, অপহরণের ঘটনায় ভুক্তভোগীর পিতা গতরাতে থানায় অবহিত করেন। অভিযোগের এক ঘণ্টার মধ্যে পুলিশের আধুনিক প্রযুক্তির  মাধ্যমে অপহৃত ট্রাক হেলপারকে উদ্ধার করা হয়। সেইসঙ্গে অপহরণকারীদের একজনকে আটক করা হয়েছে। পলাতক আসামিদের আটকের চেষ্টা চলছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর