× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২২ মে ২০২২, রবিবার , ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

মহেশপুরের ভারতীয় সীমান্তে র‌্যাংগস মটরস্‌-এর ম্যানেজারের লাশ উদ্ধার

বাংলারজমিন

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি
২৭ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার

ঝিনাইদহের মহেশপুরের লেবুতলা সীমান্তের ওপারে ভারতের কাশিপুরে এক বাংলাদেশির লাশ পাওয়া গেছে। মৃত বাংলাদেশির নাম প্রদীপ কংশ বণিক (৪৮)। গত মঙ্গলবার সকালে ভারতের কাশিপুরের রাস্তায় প্রদীপ কংশ বণিকের মৃতদেহটি পড়ে ছিল।  
ভারতের বাগদা থেকে সাংবাদিক উত্তম সাহা জানান, পশ্চিবঙ্গের ২৪ পরগনা জেলার বাগদা থানার কাশিপুর গ্রামের সীমান্ত এলাকায় পাসপোর্টধারী এক বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার করেছে বাগদা থানা পুলিশ। পাসপোর্টধারী ব্যক্তির নাম প্রদীপ কংশ বণিক, তার পাসপোর্ট নম্বর আর ৪৮৮৭৮০৮। তিনি আরও জানান, মৃতদেহের পাশে ৪টি মোবাইল ফোন, র‌্যাংগস মটরস্‌ লিমিটেডের একটি ভিজিটিং কার্ড পড়ে ছিল।
র‌্যাংস মটরস্‌ লিমিটেডে যোগাযোগ করলে লিটন নামে এক কর্মকর্তা জানান, প্রদীপ কংস বণিক তাদের হেড অফিসের ম্যানেজার। অফিস থেকে খবর পেয়ে এবি ব্যাংকে কর্মরত সুবীর কংস বণিক ফোনে জানান, মৃত প্রদীপ তার বড় ভাই। তিনি র‌্যাংগস্‌ মটরস্‌ লিমিটেডের ম্যানেজার।
তাদের গ্রামের বাড়ি বরিশাল জেলায়। তিনি গত ২৩শে জানুয়ারি অফিসের কাজে যশোর যান। তার পাসপোর্টে বিজনেস ভিসা লাগানো আছে। তিনি কী কারণে ভারতে গেছেন তা তিনি জানেন না বলে জানান মৃত প্রদীপ কংস বণিকের ভাই সুবীর কংস বণিক।
মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, মহেশপুরের লেবুতলা সীমান্তের ওপারে ভারতে এক ব্যক্তির মৃতদেহ পাওয়া গেছে বলে সকালে শুনেছি। এছাড়া আর কিছুই জানতে পারিনি। বিজিবি’র পক্ষ থেকে জানানো হয়, মৃত প্রদীপের নিকট যে পাসপোর্ট ছিল তা ভারতীয়। ফলে তার লাশ ভারতীয় পুলিশ ও বিএসএফ নিজেদের নাগরিক দাবি করে নিয়ে গেছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর