× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২২ মে ২০২২, রবিবার , ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

‘পত্রিকা খুললেই পরীমনি, খুকুমণি, দীপু মনি’

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(৩ মাস আগে) জানুয়ারি ২৭, ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৭:০৭ অপরাহ্ন

মৌলভীবাজার-২ আসনের সাংসদ সুলতান মোহাম্মদ মনসুর বলেছেন, পত্রিকা খুললেই পরীমনি, খুকুমণি আর দীপু মনিদের কাহিনি। এসব দেখলে বাংলাদেশের বর্তমান প্রজন্ম, নতুন প্রজন্ম হতাশ হয়। পরীমনি আর খুকুমণিদের লেলিয়ে দেয়া হচ্ছে। কাদের নেতৃত্ব দূষিত হয়? সমাজ দূষিত হয়? এটি একটি ষড়যন্ত্র। অথচ নতুন প্রজন্মের জন্য একটি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ উপহার দেয়া জাতীয় কর্তব্য।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের ১৬তম অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

সুলতান মনসুর বলেন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী অধ্যাপক ইয়াসমিন হক শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙিয়েছেন? সেখানে রাজনৈতিক নেতৃত্ব ছিলেন না? জাফর ইকবালকে সেখানে পাঠানোর জন্য সংসদ নেত্রী সেই ব্যবস্থা করেছেন নিশ্চয়ই।।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
ওবাইদুল
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ২:২৪

দেশের সর্বত্রই যে পচন ধরেছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না । এর জন্য ওনারাও দায়ী। পদত্যাগের জন্য ছাত্রদের দাবীর মুখে ক্ষমতার মোহে অন্ধ হয়ে যাওয়া শিক্ষকদের জন্য কলঙ্কিত হতে যাওয়া ব্যাক্তির ভিসির পদ আগলে রাখা দেখলেই বুঝা যায় সমাজ কথায় গিয়ে দাড়িয়েছে !

sdd
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ১:৩৭

পরীমনি, খুকুমনি, দীপুমনি এটা কী ধরনের ভাষা? অন্যকে অসম্মান করে নিজে সম্মানিত হওয়া যায় না, মিঃ মনসুর।

Keramot ali
২৭ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৯:২৫

এলাকায় যান সাধারণ মানুষের খবর নেন

Shobuj Chowdhury
২৭ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৮:০০

Because they are birds of the same.

wow
২৭ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৭:৫৭

আপনি ডাকসুর প্রাক্তন ভিপি হিসাবে এই ভিসির পদত্যাগে সক্রিয় অংশ নেয়া দরকার ছিল। কারণ ছাত্র-ছাত্রীদের আপনি প্রতিনিধিত্ব করেছেন। একদিনও আপনি সেখানে গেলেন না।

অন্যান্য খবর