× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ১৯ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার , ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

সৌদিতে বাংলাদেশি যুবককে গলা কেটে হত্যা

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কুমিল্লা থেকে
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার

 কোভিডের টিকা দেয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে বশির আহমেদ (২৪) নামে এক বাংলাদেশি যুবককে হত্যা করেছে পাকিস্তানি কয়েকজন যুবক। সৌদি আরবের আল কাসিম শহরের বরাইদা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত বশির কুমিল্লা চান্দিনা উপজেলার তুলাতলি গ্রামের মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। গত মঙ্গলবার রাতে হত্যার ঘটনা তার পরিবার জানতে পারে। এ ঘটনায় পাকিস্তানের ২ ও বাংলাদেশি ১ যুবককে আটক করে পুলিশ। আটক পাকিস্তানি যুবকরা বশিরকে হত্যার ঘটনা স্বীকার করে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে নিহত বশিরের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, পুরো পরিবারে চলছে শোকের মাতম। কোনো সান্ত্বনাই ছেলেহারা মায়ের মনকে প্রবোধ দিতে পারছে না।
পরিবারের লোকজন জানান, পাঁচ বছর আগে কাজের উদ্দেশ্য সৌদিতে যান বশির। ৪ ভাইয়ের মধ্যে সবার ছোট। সৌদির যে কোম্পানিতে কাজ করতেন সে কোম্পানির কয়েকজনের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় বশিরের। তারা ছিল পাকিস্তানি। বন্ধুত্বের সুবাদে কোম্পানির একটি ক্যাম্পে তারা একসঙ্গে থাকতো। রোববার রাতে ওই বন্ধুরা ওই শহরের কোনো এক নির্জন জায়গায় নিয়ে গলা কেটে হত্যা করে তাকে। বশিরের বড়ভাই সৌদি প্রবাসী মোজাম্মেল হক জানান, বশির যে ক্যাম্পে থাকতো সেখানে কয়েকজন পাকিস্তানিও থাকতো। সোমবার রাতে তাকে গলা কেটে খুন করে পাকিস্তানিরা। বশির গত কয়েক মাস বাড়িতে টাকা পাঠায়নি। টাকাগুলো তার কাছে ছিল। ওই টাকার লোভে পাকিস্তানি যুবকরা কৌশলে ক্যাম্প থেকে ডেকে নিয়ে আমার ভাইকে হত্যা করে আবার ক্যাম্পে ফিরে আসে। পরে রাতে যখন বশিরকে ফিরে আসেনি তখন তারা কেউ বলে বশির হসপিটালে গেছে, কেউ বলে হোটেলে খেতে গেছে। কেউ বলে দূরে ঘুরতে গেছে। পরে আমি বিষয়টি পুলিশকে জানালে পুলিশ পাকিস্তানি দুই যুবককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদে ওই দুই যুবক হত্যার কথা স্বীকার করে। এ ব্যাপার চান্দিনা উপজলা নির্বাহী অফিসার আশরাফুন নাহার জানান, বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। নিহতের পরিবার আমাদের সঙ্গে যোগাযাগ করলে আর্থিক সহায়তা পাওয়ার জন্য আমরা সহযাগিতা করবো।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর