× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৩ মে ২০২২, সোমবার , ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২১ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

২৬শে জানুয়ারি টকশোতে কলিমউল্লাহ /গতকাল ও আজকের মধ্যে একটা বড় অস্ত্রের চালান ভারতের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম বন্দরে খালাস হয়েছে

প্রথম পাতা


২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার

আমাদের এই সময়টা বাংলাদেশের জন্য ক্রুসাল একটা সময়। গতকাল এবং আজকে এই সময়ের মধ্যে একটা বড় অস্ত্রের চালান ভারতের উদ্দেশ্যে খালাস হয়েছে। আমাদের চট্টগ্রাম বন্দরে। এবং এটি ধরেই নেয়া হচ্ছে সেভেন সিস্টারের উদ্দেশ্যে। ঘোষণাটা সেই ১০ ট্রাক অস্ত্রের  মতো একটি বিষয়। এবং এটা নিয়ে কোয়াইট একটা ডিপ্লোমেসি বিষয়। এখন এই যে বাস্তবতা...। গত ২৬শে জানুয়ারি ফেসবুক পেজে প্রচারিত এক টকশোতে এ মন্তব্য করেন শিক্ষাবিদ ও গবেষক নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ।
ফেস দ্য পিপল নামে ওই টকশোতে এ পর্যায়ে সঞ্চালক জানতে চান গতকাল বলতে মানে আজ ২৬শে (জানুয়ারি) তারিখ, গত ২৫শে জানুয়ারি ২০২২ সালের কথা বলছেন। তখন অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ মাথা নাড়িয়ে অর্থাৎ হ্যাঁ সূচক হিসেবে বলেন, ২৫ তারিখ (জানুয়ারি) বিকালে থেকে আজকের মধ্যে ১০ ট্রাক অস্ত্র খালাস হয়েছে।

এবং সেগুলো খুব দ্রুততার সঙ্গে সম্পন্ন হয়েছে। এইরকম একটি সন্দেহের তীর ভারতের পক্ষ থেকে আমাদের দিকে ছুড়ে দেয়া হয়েছে।

মানে খোলামেলাভাবে বললে দাঁড়ায়-এরকমটি বেসিক্যালি চাইনিজ কো-অ্যাসাইনমেন্ট দেআর টুয়ার্ড সেভেন সিস্টার। এই যে অবস্থাটি। এটি আপনার চাউর হওয়ার যে ব্যাপারটি ঘটলো। সেটা থেকেই বোঝা যায় যে, ভারত কতটা  শ্যেন দৃষ্টিতে সমস্ত কিছু পর্যবেক্ষণ করে। এবং আমাদের প্রতিটি প্রতিষ্ঠান, প্রতিটি ক্ষেত্রে তাদের সজাগ নজর আছে।
আমরা ব্রাহ্ম স্টাইলে আপনার অ্যাডহক একটা পলিসি পারসুয়েন্সের ভেতর দিয়ে কিন্তু আমাদের পলিসি পারসু করি। যেটা আসলে খুব একটা বিজ্ঞানসম্মত নয়।

আপনার সেই ৭২ থেকে শুরু করে ২২ পর্যন্ত গত ৫০ বছরে আমরা যদি কন্সটেন্সলি পারসেসটেন্সলি আমাদের ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট.. সচেষ্ট থাকতাম তাহলে কিন্তু আজকের এই পরিস্থিতি হয় (না)। সুতরাং সময় এসেছে আমাদের বাংলাদেশ ফার্স্ট এই পলিসি পারসুু করার। এবং তারপরে অন্য বিষয়।  
এ সময় সঞ্চালক জানতে চান আমরা কতটুকু ক্ষমতা রাখি? আর আপনি বলছিলেন যে, আমাদের প্রতি তারা নজর রাখছে, নজরটা কি মোড়লগিরি করার নজর? নাকি বন্ধত্বপূর্ণ নজর? কোনটা?
ড. নাজমুল আহসান কলিম উল্লাহ বলেন, এটা বন্ধত্বপূর্ণ নজর বলাটা সরলিকরণ করা হবে।  
আসলে তারা তাদের স্বীয় জাতীয় স্বার্থে একেবারে যেটাকে বলে ডিটেইল নজর যেটা- সেটা তারা মেইনটেইন করছে। এতে কোনো সন্দেহ নেই।

সঞ্চালক, সেক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন যে অন্যান্য সংকটের কথা, যেটা আপনি বললেন- এক্ষেত্রে বাংলাদেশ যে পজিশনে আছে? কি কি অবস্থায় আছে? আমরা জানি যে কোনো দিকেই যাচ্ছে না।
এক্ষেত্রে ভারতের বা মোড়লগিরির কোনো চাপ কি আসে আমাদের এখানে? সেখানে কি আমাদের পড়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে? কারণ সেখানে চায়না রয়েছে।

কলিমউল্লাহ বলেন, দেখুন গতকাল আমার জানা মতে কলকাতায় অবস্থিত যে আমেরিকান কনসাল জেনারেল তিনি বাংলাদেশে এসেছিলেন এবং আজকে চলে গেছেন। কলকাতার মার্কিন কনসাল জেনারেল অফিস বরাবরই কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। সেই ৬৩ জেলায় বোমা হামলার ঘটনার সময় থেকে শুরু করে গ্রেনেড হামলার যে কাহিনী সেই সময় পর্যন্ত। সুতরাং এই মুভমেন্টগুলো আমাদের আসলে খেয়াল করা দরকার। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ভারত তাদের জাতীয় স্বার্থে একে-অপরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার সম্পর্ক বজায় রাখছে। বেসিক্যালি আমাদের ভারত সীমান্ত দেখা-শোনা করে ইসরাইল।

আমাদের এই হঠাৎ করে সীমান্তে আপনার প্রাণহানির ঘটনাগুলো বেড়ে যাওয়ারও মূল কারণ কিন্তু ইসরাইল। তারা বিএসএফ’র সঙ্গে অ্যাডভাইজরি একটি রোল প্লে করে। কলকাতায় তাদের একটা আওরঙ্গজেব রোডে অফিস আছে।
এক প্রশ্নের জবাবে কলিমউল্লাহ বলেন, ইসরাইলের সঙ্গে আমরা সম্পর্কটা নরমালাইজ করি নাই। অনেক মুসলিম দেশ এই বাধা অতিক্রম করেছে। আমাদের জাতীয় স্বার্থে প্রয়োজন ছিল।

এখন কিন্তু ইসরাইল তাদের স্বার্থে আমাদের সীমান্তে নজরদারি বজায় রেখেছে। অ্যাডভাইজরি রোল-প্লে করছে বিএসএফ’র সঙ্গে। আমাদের কোনো ক্লু নেই। যদি আমাদের এক ধরনের ডিপ্লোম্যাসি থাকতো তাহলে ব্যাকফুটে থাকতে হতো না। আমাদের প্রতিবেশী রাজ্য মিজোরামের অনেক নাগরিক ইসরাইলের সেনাবাহিনীতেও যোগ দিয়েছে। ইসরাইল যদি আরেকটি ইহুদি স্টেট সংস্থাপন করতে চায় আমাদের দোরগোড়ায় তাহলে অবাক হওয়ার কিছু নেই।
বর্তমান রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভারত, ইসরাইল ও মিয়ানমার একসঙ্গে জড়িত বলে আমার ধারণা। যুক্তরাষ্ট্র নজর রাখছে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Md Mizanur Rahman
৩০ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার, ৬:৪৩

দশ ট্রাক অস্ত্র রাষ্ট্রের পুলিশ বাহিনী তথা রাষ্ট্র ধরেছিল তারপরও তখন যারা ক্ষমতায় ছিল তাদের সাজা হয়েছিল কিন্তু উনার কথা যদি সত্যি হয় তাহলে কি এবার রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় গোপনে এসব হয়েছে। তাই এর জন্য কে দায়ী হবে এবং বিচার হলে কাদের সাজা হবে?

মোঃ জিহাদুল ইসলাম
৩০ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার, ৪:৫২

কলিমউল্লাহ একজন বদমাশ লোক। সে বাঁচার জন্য ভারত ও ইসরাইলের দালালি করছে। এই দুই দেশের দালালি করলে কেহ তার একটা পশমও ছিঁড়তে পারবেনা। সে একজন ভাল খেলোয়াড। টকশোতে যারা এই বদমাশকে নেয়, তারাও বড় বদলোক।

xxx
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ২:৪৮

শিক্ষাবিদ ও গবেষক!

শামীম হাসান
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ২:৪২

এরা একেকদিন দিন একেক আইটেম দিয়া নেশা করে। আইজ মনে হয় ককটেইল উপাদান কয়েকটা এবং মাত্রা বেশী থাকা বিধায় বে-সামাল হয়ে গেছে। আপাদমস্তক দূর্নীতিগ্রস্থ এই ব্যাক্তি কয়েকদিন আগেই তো বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের চত্তর থেকে পলায়ন করে ছিলেন।

জামশেদ পাটোয়ারী
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ১:১৭

এই কলিমুল্লাহই ২০১৮ সালের রাতের ভোট ডাকাতির নির্বাচনের পর নির্বাচন পর্যবেক্ষক হিসাবে ঐ নির্বাচনকে বৈধতা দিয়েছিলেন। পরবর্তীতে বেগম রোকেয়া বিশ্বিদ্যালয়ের ভিসির পদ উপহার স্বরুপ পেয়েছিলেন। তারপর দূর্ণীতির অভিযোগে অভিযুক্ত হয়ে ভিসির পর ছাড়তে হয়। আমার মনে সেই অভিযোগ এনে তাকে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বের করে এনে আগামী সরকার বিরোধী আন্দোলনের আগে আগে সরকার তাকে বিশ্বস্ত পারসন হিসাবে দুতিয়ালীতে নিয়োগ দিয়েছে। সরকারের পছন্দ দূর্ণীতিগ্রস্থ লোক, সেই হিসাবে দূর্ণীতির কারণে কলিমুল্লাহকে এত তাড়াতাড়ি ঝেটিয়ে বিদায় করার কথা নয়। আর মিডিয়াগুলোও আর মানুষ পাচ্ছেনা টক শোতে নিয়ে আসার জন্য।

মো:হেদায়েত উল্লাহ
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ১২:০০

প্রফেসর কলিম উল্লাহ যে অস্রের কথা বললেন এটাতো মারাত্মক ব্যাপার।

এরতেজা কাজী
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ১০:২১

এতো তো দেখি প্রকাশ্যে দিবালোকে বন্ধু রাষ্ট্রের, বন্ধুর জন্যে দালালি করছে!

Muskan
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ১১:১৫

If true, a very very alarming news indeed. Time has come to round up all Indians here and downsize the Indian HC, but I suppose we have to wait for a patriotic govt who will spearhead Bangladesh first concept.

আসলাম চৌধরী
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ১০:০৫

এই কলিমুল্লাহ্ একজন আপাদমস্তক দুর্নীতিগ্রস্থ ধান্দাবাজ। তিনি বাংলাদেশে -তাদের- এজেন্ডা বাস্তায়নের দেশীয় প্রতিনিধি হিসেবে গত আট দশ বছর যাবৎ গোপনে কাজ করে যাচ্ছেন। এবার প্রকাশ্যে আসলেন। তার অংশ হিসেবে দেশ ও জনগনকে জুজুর ভয় দেখাচ্ছেন যাতে দ্রুত -তাদের- কে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

amir
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ১০:৫১

গতকাল এবং আজকে এই সময়ের মধ্যে একটা বড় অস্ত্রের চালান ভারতের উদ্দেশ্যে খালাস হয়েছে। আমাদের চট্টগ্রাম বন্দরে।..বেসিক্যালি আমাদের ভারত সীমান্ত দেখা-শোনা করে ইসরাইল।-------শুধুই কি "চমকপ্রদক এবং তথ্য পূর্ণ মন্তব্য" এটুক বলাই যথেষ্ট ?

আসলাম চৌধরী
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ৯:৪৩

এই কলিমুল্লাহ্ একজন আপাদমস্তক দুর্নীতিগ্রস্থ ধান্দাবাজ। তিনি বাংলাদেশে -তাদের- এজেন্ডা বাস্তায়নের দেশীয় প্রতিনিধি হিসেবে গত আট দশ বছর যাবৎ গোপনে কাজ করে যাচ্ছেন। এবার প্রকাশ্যে আসলেন। তার অংশ হিসেবে দেশ ও জনগনকে জুজুর ভয় দেখাচ্ছেন যাতে দ্রুত -তাদের- কে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

জাহিদ
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ৯:২২

উনি এত এত ডিগ্রি নিয়ে টক শোতে এসে যেসব তথ্য দেন, তার চাইতে ক্লাস ফাইভে পড়া কোনো ছাত্র গুগুল সার্চ করে আরও ভালো তথ্য দিতে পারবে।

Kazi
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ৮:৫৫

মিজোরামের লোক কি ইহুদি হয়ে যাবে । আর যদি হয়েও যায় তবে ভারতের অস্তিত্ব সর্বাগ্রে সংকটে পড়বে ।

আব্দুর রহমান
২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার, ৮:৩১

তাকে গ্রেফতার করে তার থেকে অস্ত্রের সুলুক সন্ধান করা হোক! চামচামি করে রেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হইছিল, এন্তার দূর্নীতি করে আন্দোলনের মুখে বিদায় হয়ে এখন ঝাল ঝাড়তেছে। ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্বভাবিকরণের একজন এডভোকেট! ১/১১ এর পরে 'ফ্রেন্ডস অব ইসরাইল' এর অফিসিয়াল তালিকায় তার নাম ছিল, আরেকজন সালাহউদ্দিন নামে এক সাংবাদিকের। আপাদমস্তক দূর্নীতিগ্রস্থ, নীতিনৈতিকতার বালাইহীন এক বুদ্ধিজীবী।

Syed Bahar
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ৮:৪৭

This information is delicate and sensitive as well.

sdd
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ৭:২১

কলিমুল্লা জানলো কী করে? সে কি এই আর্মস স্মাগলের সঙ্গে জড়িত?

Md
২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ১২:৫৩

Probably, he smoked a little bit more today!!

অন্যান্য খবর