× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৭ এপ্রিল ২০২১, শনিবার

বরকত-রুবেলের ৫৭০৬ বিঘা জমি ক্রোকের নির্দেশ

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক
(১ মাস আগে) ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩:৫৯ অপরাহ্ন

অর্থ পাচারের মামলায় ফরিদপুর শহরের আলোচিত দুই ভাই সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের ৫ হাজার ৭০৬ বিঘা জমি এবং  ৫৫টি গাড়ি ক্রোকের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার  ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশ এ আদেশ দেন।
আদালতে জমি, গাড়ি ক্রোক ও টাকা ফ্রিজের আবেদন করে মামলার তদন্ত সংস্থা সিআইডি। শুনানি শেষে আদালত এ আদেশ দেন। গাড়ির মধ্যে রয়েছে- বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস, নিজেদের ব্যবহৃত প্রাইভেট। পাশাপাশি ৯ কোটি ৮৮ লাখ টাকা ফ্রিজের আদেশ দিয়েছেন আদালত।
সংশ্লিষ্ট আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল এ তথ্য জানান।  দুই হাজার কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে গত বছরের ২৬ জুন বরকত ও রুবেলের বিরুদ্ধে কাফরুল থানায় মামলা দায়ের করেন সিআইডির পরিদর্শক এস এম মিরাজ আল মাহমুদ।
মামলার এজাহারে বলা হয়, ২০১০ সাল থেকে এ বছর পর্যন্ত ফরিদপুরের এলজিইডি, বিআরটিএ, সড়ক বিভাগসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কাজের ঠিকাদারি নিয়ন্ত্রণ করে বিপুল অবৈধ সম্পদের মালিক হয়েছেন বরকত ও রুবেল। এছাড়া, মাদক ব্যবসা ও ভূমি দখল করে অবৈধ সম্পদ গড়েছেন। ২৩টি বাস, ট্রাকসহ বিলাসবহুল গাড়ির মালিক হয়েছেন। উল্লেখযোগ্য পরিমাণ অর্থ হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে পাচার করেছেন।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
md.shamsur rahman
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:০৯

এত সম্পদ তো একদিনে হয়নি, এতদিন দুদক নাকে তেল দিয়ে ঘুমাচ্ছিল?

আককাস
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:০৫

রুপ কথার গলপের মত মেন হয়

AMIR
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:০৬

৫ হাজার ৭০৬ বিঘা জমি -----সৎ পথে কামাই করে কত প্রজন্মে এত জমি ক্রয় করতে পারে?

আনিস উল হক
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩:৪৮

এত দেখা যায় লর্ড কর্নওয়ালিসের জমির সেই চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত! দেশীয় আইনে যখন ষাট বিঘার বেশী জমির মালিক হওয়া যায় না তখন এঁরা এতো জমির মালিক হলেন কিভাবে? সেখানকার সহকারী কমিশনার ভূমি ও তহসিলদারের নজরে বিষয়টি এল না কেন?

অন্যান্য খবর