× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার , ৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ
চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকি

১৬ই ডিসেম্বরের সব ম্যাচ পেছালো

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২৫ নভেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার

১৪ই ডিসেম্বর ঢাকায় শুরু হচ্ছে এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকি। ছয় জাতির এ টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বড় দ্বৈরথ গ্রুপ পর্বেই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ। ম্যাচটি মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে হওয়ার কথা ছিল আগামী ১৬ই ডিসেম্বর। কিন্তু সেদিন মহান বিজয় দিবস হওয়ায় ওই দিনের সব ম্যাচ পিছিয়ে দিতে এশিয়ান হকি ফেডারেশনকে অনুরোধ করেছিল বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন। বাংলাদেশের অনুরোধে সাড়া দিয়েছে এশিয়ান হকি ফেডারেশন। এ জন্য ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি এক দিন পিছিয়ে ১৭ ডিসেম্বরে নেয়া হয়েছে। শুধু ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচই নয়, সেদিনের মালয়েশিয়া-জাপান এবং বাংলাদেশ-দক্ষিণ কোরিয়া ম্যাচও এক দিন পিছিয়ে ১৭ ডিসেম্বরে নেয়া হয়েছে।
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীকে স্মরণীয় করে রাখতে বছরব্যাপী কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়।
এর মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ১৬ই ডিসেম্বরকে কেন্দ্র করে সাজিয়েছে তাদের মূল আয়োজন। ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান। একই দিনে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকিতে ঢাকার মওলানা ভাসানি স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হওয়ার কথা ভারত-পাকিস্তানের। রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানের কারণে এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ম্যাচে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা দেয়া সম্ভব নয়। তাই ওই দিনের খেলা পেছানোর আবেদন করে ফেডারেশন। এ বিষয়ে হকি ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউসুফ বলেন, ‘বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে অনেক দেশের রাষ্ট্রপ্রধান এবং সরকারপ্রধান সেদিন ঢাকায় থাকবেন। যে কারণে আমরা ওই দিনের তিনটি ম্যাচই পিছিয়ে দেয়ার অনুরোধ করেছিলাম। এশিয়ান হকি ফেডারেশন আমাদের আবেদনে সাড়া দেয়ায় আমরা খুশি।’ টুর্নামেন্টের বাকি ম্যাচগুলোর তারিখ ও সময় অপরিবর্তিত থাকবে বলে জানিয়েছেন ফেডারেশনের এই কর্মকর্তা।  এমনিতেই খেলার মাঠে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হওয়া মানেই বাড়তি উত্তেজনা। হকি মাঠেও সেই উত্তাপের আঁচ থাকে। এবারের চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ঢাকায় বাংলাদেশি হকিপ্রেমীদের জন্য তেমনই একটা সুযোগ করে দিচ্ছে দুই পরাশক্তির লড়াই উপভোগের।
করোনায় গত বছর স্থগিত হয়ে গিয়েছিল চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকি। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ হবে ১৪ই ডিসেম্বর মালয়েশিয়ার বিপক্ষে। ১৫ই ডিসেম্বর বাংলাদেশ খেলবে ভারতের বিপক্ষে। ১৭ই ডিসেম্বর বদলে যাওয়া সূচিতে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ কোরিয়া।  
এরপর ১৮ই ডিসেম্বর বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে জাপানের। গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচটি পাকিস্তানের বিপক্ষে, ১৯শে ডিসেম্বর। টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে মালয়েশিয়ার গোবিনাথান কৃষ্ণমূর্তিকে অন্তবর্তীকালীন কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে ফেডারেশন। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) উপদেষ্টা হকি কোচ। প্রিমিয়ার হকি লীগ শেষে ৩০শে নভেম্বর তার অধীন বিকেএসপিতে শুরু হবে জাতীয় দলের ক্যাম্প।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর