× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৯ মে ২০২২, রবিবার , ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

রাসেল ঝড়ে ঢাকার প্রথম জয়

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৪ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার

ব্যাট হাতে ঝড় তুললেন আন্দ্রে রাসেল। ১৫ বলে খেললেন ৩১ রানের হার না মানা ইনিংস। তার ব্যাটে চড়ে চলতি বিপিএলে প্রথম জয়ের মুখ দেখলো মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকা। ফরচুন বরিশালকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে তারা। নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচেই হেরেছিল ঢাকা।

মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১২৯ রান সংগ্রহ করে ফরচুন বরিশাল। লক্ষ্যটা ১৭.৩ ওভারে পেরিয়ে যায় মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকা।

রান তাড়ায় নেমে শফিকুল ইসলাম ও আলজারি জোসেপের তোপে ১০ রানেই ৪ উইকেট খুঁইয়ে ফেলে ঢাকা। তামিম ইকবাল (০) ও মোহাম্মদ শাহজাদকে (৫) বোল্ড করেন শফিকুল। মোহাম্মদ নাঈম শেখ (৪) ও জহুরুল ইসলামকে (০) সাজঘরের পথ দেখান জোসেফ।

পঞ্চম উইকেটে শুভাগত হোমকে নিয়ে জুটি গড়েন অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।
দলীয় ৭৯ রানে শুভগতর (২৫ বলে ২৯) বিদায়ের পর উইকেটে আসেন আন্দ্রে রাসেল। এসেই চড়াও হন বোলারদের ওপর। অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ দেখে শুনে খেলছিলেন। স্কোর লেভেল হয়ে যাওয়ার পর সাকিবের বলে আউট হন তিনি। ৪৭ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ৪৭ রান করেন রিয়াদ।

এর আগে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নামে ফরচুন বরিশাল। ইনিংস উদ্বোধন করেন সৈকত আলি ও নাজমুল হাসান শান্ত। ৯ বলে ৫ রান করে শুভাগত হোমের বলে নাঈম শেখের তালুবন্দি হয়ে সাজঘরে ফেরেন।

১৮ বলে ১৫ রান করে হাসানের মুরাদের শিকার হয়ে বিদায় নেন সৈকত। রানের খাতা খোলার আগেই আন্দ্রে রাসেলের শিকার হন তৌহিদ হৃদয়।

টানা তিন ওভারে তিনটি উইকেট হারিয়ে বরিশালের স্কোর দাঁড়ায় ২৩ রানে ৩ উইকেট। চতুর্থ উইকেটে জুটি গড়েন সাকিব আল হাসান ও ক্রিস গেইল। তাদের ৩৭ রানের জুটি ভাঙে সাকিব আউট হলে। রুবেলের বলে মোহাম্মদ শাহজাদের হাতে ক্যাচ দেন সাকিব। বরিশালের অধিনায়ক করেন ১৯ বলে ২৩ রান। সাকিবের ইনিংসের ছিল দুইটি চার ও একটি ছক্কা।

প্রথমবার একাদশে সুযোগ পেয়ে ব্যর্থ হয়েছেন নুরুল হাসান সোহান। ৫ বলে ১ রান করেন তিনি। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের বলে বাউন্ডারিতে জহুরুল ইসলামের হাতে ধরা পড়েন সোহান। তারপর গেইলও বিদায় নেন। ৩০ বলে ৩৬ রান করেন এই ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার। তার ইনিংসে ছিল ৩টি চার ও ২টি ছক্কা।

বরিশালের ইনিংসে বাকি রান যোগ করেন ব্রাভো একাই। এই ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটারের ব্যাট থেকে আসে ২৬ বলে হার না মানা ৩৩ রান। ব্রাভোর ইনিংসে ছিল ৩টি চার ও ১টি ছক্কা। নির্ধারিত ২০ ওভারে বরিশাল সংগ্রহ করে ১২৯ রান।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর